পুলিশের অমানবিকতায় জীবন গেল যুবকের

0
61

নিজস্ব সংবাদদাতা, নদিয়া : তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রের বাইক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর জন্য অভিযোগের আঙ্গুল উঠলো পুলিশের বিরুদ্ধে।মৃত কলেজ ছাত্রের নাম প্রণব বাগানে।মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার শান্তিপুরে।সূত্রের খবর,শান্তিপুর পুরসভার 18 নম্বর ওয়ার্ডের ডাবরে পাড়ার বাসিন্দা প্রণব বাগানে শান্তিপুর কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল।অভিযোগ,মঙ্গলবার শান্তিপুর গোবিন্দপুর আমবাগানে গৃহ শিক্ষকের সাথে পিকিনিক করতে গিয়েছিল প্রণব।

অভিযোগ,আনুমানিক সাড়ে 5 টা নাগাদ বাইকে চেপে পিকনিক থেকে ফেরার পথে শান্তিপুর বাইপাসের মোড়ে প্রণবের বাইক থামানোর চেষ্টা করে শান্তিপুর থানার এক সিভিক পুলিশ।

অভিযোগ,সেই সময় পাশ কাটিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে সামনে থেকে আসা একটি ঘোড়ার গাড়ীর সাথে ধাক্কা লাগে প্রণবের বাইকটির।ঘটনায় গুরুতর আহত হন প্রণব।অভিযোগ,বাইক থামানোর চেষ্টা করলেও দুর্ঘটনার পর কিন্তু প্রনবকে উদ্ধার করে হাসপাতাল পাঠানোর কোনো উদ্যোগ নেয়নি ওই সিভিক পুলিশ ও তার সাথে থাকা শান্তিপুর থানার পুলিশ কর্মীরা।

অভিযোগ,পরে স্থানীয় মানুষের চেষ্টায় প্রণব কে শান্তিপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই মৃত্যু হয় তার।অভিযোগ,পুলিশের হটাৎ করে বাইক থামানোর চেষ্টায় কার্যত ঘাবড়ে গিয়ে পাস কাটিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করতে গিয়েই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পাশাপাশি মৃতের পরিবারের অভিযোগ,দুর্ঘটনার পর সময় নষ্ট না করে পুলিশ যদি তড়িঘড়ি প্রণব এর চিকিৎসার ব্যবস্থা করত,তবে হয়ত প্রাণে বেঁচে যেত ওই কলেজ ছাত্র।এই ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে শান্তিপুর হাসপাতাল চত্বরে সাময়িক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।অন্যদিকে এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা ডাবরে পাড়া এলাকায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here