দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিদ্যালয়গুলির পঠন পাঠনে এবার যুক্ত হতে চলেছে ডেনমার্কের ভাবনা

0
52

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিদ্যালয়গুলির পঠন পাঠনে এবার যুক্ত হতে চলেছে ডেনমার্কের ভাবনা। বর্তমানে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তথা রাজ্যের কর্মমুখী শিক্ষাদানের ভাবনাকে মিলিত প্রচেষ্টায়  আরও বেশী করে সফল করে তুলতে ডেনমার্কের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিনিধিদল এবং কোলকাতার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিনিধিরা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সাথে আলোচনা সভায় বসে।

শুক্রবার কোলকাতার আহেড ইনশিয়েটিভ নামক একটি  স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সদর শহর বালুরঘাটের হোটেল সেরেনা-র সভাগৃহে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় আহেড ইনিশিয়েটিভ-এর নির্দেশক রত্ননীল দে, ডেনমার্কের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আই আই ইন্টারেস্ট-এর চেয়ারম্যান সৌরেন জেপসন,সম্পাদক মি. পল ছাড়াও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন প্রান্তের প্রাথমিক এবং হাই স্কুলের বেশ কিছু শিক্ষক শিক্ষিকারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার কর্তৃক বিদ্যালয়গুলির পঠন পাঠনের বিষয়বস্ততে আনন্দের মাধ্যমে শিক্ষাদান পদ্ধতি সহ কর্ম মুখী  শিক্ষাদান পদ্ধতিকে আরও বেশী করে প্রাণবন্ত ও সফল করে তুলতে শিক্ষক এবং শিক্ষিকাদের মধ্যে একে অপরের সঙ্গে ভাবের আদান প্রদানের মধ্য দিয়ে সেই পঠন পাঠন পদ্ধতির গুনগত মান বৃদ্ধির চেষ্টায় এদিনের এই আলোচনা সভার আয়োজন। আলোচনা সভার আয়োজক সংস্থা আহেড ইনিশিয়েটিভ-এর নির্দেশক রত্ননীল দে বলেন  মূল মন্ত্রটা হচ্ছে কিভাবে কর্মমুখী শিক্ষাকে জোড় দেওয়া যায়।

তিনি বলেন বর্তমান সিলেবাসে কর্মমুখী শিক্ষায় পাঠদান বিষয়টি থাকলেও সেটাকে কিভাবে আরও ভাল করে বিদ্যালয়গুলিতে সেই কর্মমুখী শিক্ষার পাঠদান করা যায় এবং যাতে ভালভাবে আমরা সবাই সেই কাজ করতে পারি এটা তারই চেষ্টা। অপরদিকে ডেনমার্ক থেকে আগত আই আই ইন্টারেস্ট-এর সম্পাদক মি. পল জানান পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও উড়িষ্যা এবং ঝাড়খন্ড রাজ্যের বিদ্যালয়গুলিতে ইতিমধ্যেই ডেনমার্কের কর্মমুখী শিক্ষণ পদ্ধিতেকে ব্যবহার করা হচ্ছে শিক্ষা দানে। মি. পল এদিন বলেন শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতিতে কর্মমুখী শিক্ষা গ্রহণযোগ্য হবে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here