স্মার্ট ফোনের যুগে বইমেলায় বই বিক্রি নেই

0
35

 

পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরে ২৩ তম বইমেলা শুরু হয়েছে চলতি মাসের ২২ তারিখে বইমেলার উদ্বোধন হয়েছে নানান অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে প্রতিদিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছে সাড়ম্বরে যার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পুরনো সংস্কৃতি মুখা শিল্প পাশাপাশি প্রবীণ ও নবীন কবি ও সাহিত্যিকদের সাহিত্যের আসর স্থানীয় শিল্পীদের গানের দ্বারা বইমেলার প্রাঙ্গন জমজমাট হয়ে উঠেছে ।বইমেলাতে মোট ৫০টি স্টল রয়েছে যার মধ্যে বেশিরভাগই কলকাতার কলেজ স্ট্রিট থেকে আগত বইয়ের দোকান গুলির মালিক যারা এই বইমেলায় স্টল গুলি দিয়েছেন জানা গেছে বই মেলা শুরু হলেও বই বিক্রি একদমই নেই বলে জানালেন কিছু স্টল মালিকরা তাদের জিজ্ঞাসা করতেই জানা গেল ডিজিটাল যুগে স্মার্টফোনের ভীড়ে বই পড়া প্রায় উঠে গেছে সেই কারণে পাঠকরা বই হাতে নিয়ে নাড়াচাড়া করলেও ওর দিকে ঝুঁকছেন না কারণ বইয়ের প্রতি যে তাদের অনীহা সেটা স্মার্টফোনের আসক্তির ফলে হচ্ছে।

 

বইমেলায় বই বিক্রি প্রায় নেই বললেই চলে এমন কথা জানালেন কলকাতার কলেজ স্ট্রিট থেকে আগত এক বইয়ের দোকানের মালিক শেখ জুলফিকার আলী ও দক্ষিন দিনাজপুর জেলার সুপরিচিত লেখক ও গবেষক সুকুমার সরকার তারা জানান অনেক কষ্ট করেই আমরা পাঠকদের হাতে বই তুলে দিচ্ছি তারা হাতে নিয়ে নাড়াচাড়া করছেন ঠিকই কিন্তু কদা কিঞ্চিৎ ভাবে হাতেগোনা ১০০ জনের মধ্যে পাঁচজন শুধুমাত্র বই কিনছেন বইমেলাতে নানান ধরনের বই এসেছে কিন্তু পাঠকদের কাছে জানতে চাইলে যারা নবীন তারা জানান যে ডিকশনারি বা অভিধান বই কেনার কি প্রয়োজন আমরা তো স্মার্টফোনে সব পেয়ে যাচ্ছি ইন্টারনেট থেকে তাই সেই কারণে বই পড়ার আগ্রহ টা অনেকটা কমে গেছে এর ফল ভবিষ্যতে মারাত্মক দিকে যাচ্ছে আমারা আশঙ্কা করছি আগামী দিনে হাতে বাঁধানো বই বা প্রেস থেকে ছাপানো বই প্রায় উঠে যাবে।

 

তবে যে যাই বলুক কিছু পাঠকরা বই হাতে তুলে নিচ্ছে পরম স্নেহে এবং সেই বইগুলো অনেকে বেশ চড়া দামে কিনে বাড়ি ফিরছেন প্রসঙ্গত স্মার্টফোনের যুগে বই পড়া কমে গেলও এখনো অনেকে আছেন যারা বই পড়তে ভালবাসেন তারা পরম স্নেহে স্টলগুলোতে ভিড় করছেন হাতে বই নেড়েচেড়ে দেখছেন সাধ্যমত হলে বই কিনে নিয়ে বাড়ি ফিরছেন বই পড়ার যে আনন্দ বা বই নতুন বই খুললে সেই বই থেকে যে প্রিন্টের গন্ধ বেরোয় সে গন্ধে মোহিত হয়ে যে বই গুলি সাধ্য মতন কিনে বাড়িমুখো হচ্ছেন। বইমেলার প্রসঙ্গে জেলাে একাংশ বিশিষ্টদের মতামত যেভাবে স্মার্টফোনের ভিড়ে বই কেনা ও পড়া উঠে যাচ্ছে তাতে বই বিক্রির উপর একটি প্রভাব পড়ছে বই বিক্রি নেই বললেই চলে তবে তারা জানান এরকম চলতে থাকলে একদিন বই প্রিন্ট প্রেস বন্ধ হয়ে যাবে আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হবেন বইয়ের দোকান মালিক থেকে শুরু করে প্রেস মালিকরা বই প্রায় উঠে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন তারা। এদিকে বইমেলায় বই বিক্রি কম থাকলেও মানুষের ঢল নামছে উল্লেখযোগ্য ভাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here