গুগুল থেকে সিলভার প্লে বটন উপরহার টাকীর এক কলেজ ছাত্র কে

0
56

অর্ণব মৈত্রঃ উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট মহকুমার টাকি গভর্নমেন্ট কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আশিক রাজা। বাবা আব্দুল রশিদ মোল্লা পেশায় একজন ব্যবসায়ী।

বসিরহাট থানার গোলপুকুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল রশিদের একমাত্র ছেলে আশিককে ইউটিউব ক্রিয়েটার অ্যাওয়ার্ড সিলভার প্লে বটন দিয়ে সংবর্ধনা জানায় গুগোল। গত শনিবার এই আওয়ার্ড পৌঁছায় আশিকের কাছে। মূলত মানসিক অবসাদগ্রস্ত মানুষদের বেঁচে থাকতে উদ্বুদ্ধ করার জন্যই এই অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন বলে দাবি করেন ওই ছাত্র।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, পরিবারের একমাত্র ছেলে আশিক ছোট থেকেই পড়াশুনায় ভালো। যথেষ্ট সাফল্যের সঙ্গেই উত্তীর্ণ হয় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায়। কিন্তু কলজে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই তেমনভাবে সাফল্য দেখাতে পারেনি সে। ততক্ষনে ইন্টার্নেট আর স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে নিজের ভবিষ্যৎ গোছানোর পরিকল্পনা শুরু করে আশিক রাজা। পরিবারের একমাত্র ছেলে ইন্টারনেটে বুঁদ হয়ে থাকায় প্রথম অবস্থায় পরিবারের লোকেরা মেনে নিতে না পারলেও সেই ইন্টারনেট থেকেই সাফল্য পেল ওই ছাত্র।

নিজের সাফল্যের বিষয়ে উল্লেখ করে আশিক জানাই, ‘ জীবনের ব্যর্থতা থেকে চরম সিদ্ধান্ত নিতে দেখেছি বহু মানুষকে। কিন্তু ব্যর্থতাই জীবনের শেষ কথা নয়। সেখান থেকেও ঘুরে দাঁড়ানো যায় প্রত্যেকটা মানুষের জীবনে। এই বিষয়গুলোই তুলে ধরে মানসিক অবসাদগ্রস্ত মানুষদের বেঁচে থাকতে উদ্বুদ্ধ করে কিছু ভিডিও পোষ্ট করে এসেছি ইউটিউবে’। গত প্রায় এক বছরে মাত্র ৩৪টি ভিডিও পোস্ট করে জনপ্রিয় আশিক রাজা।

শুধু তাই নয়, এর মাধ্যমে কর্মসংস্থানের পথ খুলে যাবে বলে দাবি ওই ছাত্রের। ইউটিউবে ভিডিও পোষ্ট করে খ্যাতি অর্জনের পাশাপাশি গত ছ’ মাসে মোটা অঙ্কের উপার্জনও পেয়েছে আশিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here