নিউজ ডেস্ক : সন্দেশখালির খুনোখুনির ঘটনায় উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। লোকসভা ভোটের পর বাংলায় অশান্তি বেরে চলেছে, উদবিগ্ন রাজ্যবাসী। তাই বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি নিয়ে চর্চা চলছে রাজনৈতিক মহলে । ৩৫৬ জারি প্রসঙ্গে রাজ্যপাল জানিয়েছিলেন, ‘‘এটা আমার এক্তিয়ারের মধ্যে পড়ে না’’।

চলতি সপ্তাহে দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যপাল। সেই বৈঠকে বাংলার সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে কথা বলেন রাজ্যপাল।

বৈঠকের পরেই বাংলার ৪ রাজনৈতিক দলকে নিয়ে রাজভবনে বৈঠক বসছেন আজকে।

বৈঠকে তৃণমূল, বিজেপি, সিপিএম ও কংগ্রেসকে রাজভবনে বৈঠকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই বৈঠক প্রসঙ্গে সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘রাজ্যপাল ডেকেছেন, আমাদের দলের প্রতিনিধিরা যাবেন। অভিষেক বলেন, ‘‘উত্তরপ্রদেশে ৩৫৬ ধারা কেন জারি করা হবে না? সেখানে বেশি জরুরি নাকি বাংলায় জরুরি?’’

বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসায় মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে মমতা বলেন, ‘‘ভোট পরবর্তী হিংসায় রাজ্যে ১০ জন মারা গিয়েছেন, রাজ্যপাল বলছেন ১২ জন। মানে পুরোটাই টার্গেট। ওঁকে সম্মান করি, কিন্তু ওঁর রাজনৈতিক ভাষণকে সম্মান করি না’’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here