শর্তসাপেক্ষে রথযাত্রার অনুমতিতে স্থগিতাদেশ চেয়ে আদালতে যাচ্ছে রাজ্য

0
28

নিজস্ব প্রতিনিধি :: বিজেপির রথযাত্রায় কলকাতা হাইকোর্ট শর্তসাপেক্ষ অনুমতি দিয়েছে। তারই বিরোধিতায় ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করতে চলেছে রাজ্য সরকার।

আগামী কাল অর্থাৎ শুক্রবারই রাজ্যের তরফ থেকে এই ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ করা হবে বলে জানা গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিজেপির রথযাত্রার অনুমতি দেন বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চে। তখনই পার্থ চট্টোপাধ্যায় পরবর্তী আইনি পদক্ষেপের ব্যাপারে আভাস দিয়েছিলেন।

সূত্রের খবর, এরপরেই সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে স্থগিতাদেশ চেয়ে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দেবাশিস কর গুপ্তের দ্বারস্থ হতে চলেছে রাজ্য।
এদিকে শুক্রবার থেকে বড়দিন উপলক্ষ্যে হাই কোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টে কাজকর্ম বন্ধ থাকবে৷ ফের আদালত খুলবে ২ জানুয়ারি৷ তাই হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের দৃষ্টি আকর্ষণ করে রাজ্য সরকার রথযাত্রা মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির আবেদন জানাবে বলে খবর।
প্রসঙ্গত, দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর এ রাজ্যে রথযাত্রার অনুমতি পেয়েছে রাজ্য বিজেপি৷ তবে রথযাত্রা আয়োজনের ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি শর্ত আরোপ করেছে হাই কোর্টের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চ৷ আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে, এক জেলা থেকে অন্য জেলায় রথ পৌঁছানোর ১২ ঘণ্টা আগে প্রশাসনকে জানাতে হবে৷ খেয়াল রাখতে হবে, যাতে মানুষের কোনও সমস্যা না হয়৷ রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে রাজ্যের কোথাও যদি কোনও অশান্তি হয়, তাহলে বিজেপিও সমানভাবে দায়ি থাকবে৷ রাজ্যকেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাই কোর্ট৷ ঘটনাচক্রে এর আগে রথযাত্রার অনুমতি চেয়ে যখন হাই কোর্টে মামলা করেছিল বিজেপি, তখন বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চই গেরুয়া শিবিরের কর্মসূচিতে স্থগিতাদেশ জারি করেছিল৷ মামলা গড়িয়েছিল হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে৷ বিশ্বনাথ সমাদ্দারের ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশে মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিজি বিজেপির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনায়ও বসেছিলেন৷ কিন্তু সামাধানসূত্র বেরোয়নি৷ শেষপর্যন্ত ফের রথযাত্রার অনুমতি চেয়ে হাই কোর্টে মামলা করে বিজেপি৷ বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর এজলাসে মামলার শুনানি হয়৷ বৃহস্পতিবার শর্তসাপেক্ষে বিজেপিকে রথযাত্রার অনুমতিও দিয়েছে আদালত৷ হাই কোর্টের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চের মামলা করার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here