স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকেই রয়েছে রাস্তা না থাকার সমস্যায়

0
41

দক্ষিণ দিনাজপুরঃ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন রাজ্য তথা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উন্নয়ণকে উদাহরণ হিসাবে পেশ করতে উদ্যত সেই সময়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন বিধানসভা এলাকা অভ্যন্তরস্থ বালুরঘাট পৌর এলাকা সংলগ্ন ৬নং ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের হোসেনপুরের সন্ন্যাস কলোনী এলাকার বাসিন্দারা স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকেই রয়েছে রাস্তা না থাকার সমস্যায়।

বালুরঘাট পৌর এলাকা থেকে মাত্র ১০০-১৫০ মিটার দূরত্বে হোসেনপুর সংলগ্ন এলাকায় রয়েছে সন্ন্যাস কলোনী। এই সন্ন্যাস কলোনী এলাকায় প্রায় ২০০-২৫০ মানুষের বসবাস।

অবস্থানগত দিক দিয়ে এই সন্ন্যাস কলোনী এলাকাটি তিন দিক দিয়ে বালুরঘাট শহরের পৌর এলাকার সঙ্গে সংযুক্ত হলেও সন্ন্যাস কলোনী এলাকায় রাস্তা নির্মাণ না হওয়ার কারনে এলাকাবাসীদের অভিযোগ বর্ষাকালে এই এলাকার বাসিন্দাদের দেড় মানুষ উচ্চতার জলের মধ্যে যাতায়াত করতে হয়, কখনো কখনো কলা গাছ দিয়ে ভেলা তৈরী করে তারা যাতায়াত করতে বাধ্য হন।

স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য রাস্তা না তৈরী হওয়ার কারনে এলাকায় আম্বুলেন্স আসতে পারে না। স্থানীয় বাসিন্দা দীপ্তা মহন্ত-র বক্তব্য স্বাধীনতা পরবর্তী সময় এই এলাকার গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল যথাক্রমে কংগ্রেস, বামফ্রন্ট, তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে থাকলেও এই কলোনীর বাসিন্দাদের যাতায়াতের সুবিধার্থে রাস্তা নির্মাণের উদ্যোগ নেয়নি কেউই। চলতি বছরে সমাপ্ত হওয়া পঞ্চায়েত নির্বাচনের নির্বাচনী ফলাফলের ভিত্তিতে এই এলাকাটি সহ ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নেয় বিজেপি। তিনি বলেন আমরা চাই রাস্তা নির্মাণ হোক। স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রে জানা গেছে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ণ পর্ষদ থেকে সংশ্লিষ্ট আধিকারিকরা এসে প্রায় দুই বছর পূর্বে রাস্তা নির্মাণের জন্য জমি জরিপ করে গেলেও রাস্তা নির্মাণ হয়নি। অপর এক স্থানীয় বাসিন্দা তথা গৃহ শিক্ষক সজল মহন্ত-র অভিযোগ ১০ বছর ধরে বিধায়ক বা সাংসদকে তিনি তার এলাকায় আসতে দেখেননি। এর পাশাপাশি তিনি সন্ন্যাস কলোনী এলাকার ৪০০ মিটার রাস্তা নির্মাণ বিষয়ে বলেন লোকসভা ভোটের পূর্বে রাস্তা নির্মাণ করতে হবে বলে দাবী উত্থাপন করার পাশাপাশি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন রাস্তা যদি নির্মাণ না করা হয় তাহলে আমরা এলাকাবাসীরা ভোট বয়কট করব। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর-এর প্রতিমন্ত্রী বাচ্চু হাসদা বলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর থেকে আমি ডাঙ্গা অঞ্চলের সমস্ত বড় বড় রাস্তা নির্মাণ করে দিয়েছি। তিনি এদিন এও জানান ছোট রাস্তা নির্মাণের দায়িত্ব স্থানীয় পঞ্চায়েতের। আমাকে কেউ এই বিষয়ে বলেনি, আমাকে বললে আমি রাস্তা নির্মাণের চেষ্টা করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here