বাংলার পর আজ ইংরেজী প্রশ্নপত্র ফাঁস এবারের মাধ্যমিকে, পর্ষদের মুখে কুলুপ

0
33

সূর্য চট্টোপাধ্যায়, নদীয়া: বাংলার পর এ বার ইংরেজি। ফের পরীক্ষার হল থেকে পাচার হয়ে গেল মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র! এ যেন বজ্র আঁটুনি, কিন্তু ফস্কা গেরো।

বুধবার ইংরেজি পরীক্ষা শুরু হওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ছড়িয়ে পড়ে ইংরেজি প্রশ্নপত্রের প্রতিলিপি। পরীক্ষা শেষে দেখা যায়, বাইরে বেরিয়ে আসা প্রশ্নের সঙ্গে হুবহু মিল রয়েছে পরীক্ষাকেন্দ্রে দেওয়া ইংরেজি প্রশ্নপত্রের।

পর পর দু’টি ভাষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ায় বিব্রত শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই তিনি মধ্যশিক্ষা পর্যদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন।বাংলার প্রশ্নপত্র বাইরে বেরিয়ে আসায় শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় রিপোর্ট তলব করেছিলেন।

বুধবার পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে নজরদারি বাড়ানো হয়। পরীক্ষার্থী থেকে শুরু করে শিক্ষক-শিক্ষিকা, এমনকি শিক্ষাকর্মীরা মোবাইল নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকছেন কি না, সেই বিষয়েও নজরদারি চালানো হয়। মোবাইল জমা রাখা হয় সেন্টার ইনচার্জের কাছে। তার পরেও প্রশ্নপত্র বেরিয়ে যাওয়া আটকানো গেল না।

এই ঘটনায় কার্যত ফের এক বার মুখ পুড়ল মধ্যশিক্ষা পর্ষদের।এ দিন মাধ্যমিকের দ্বিতীয় দিনে ইংরেজি পরীক্ষা শুরু হওয়ার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে প্রশ্নপত্রের কয়েকটি পাতা বিভিন্ন জেলায় হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ। যদিও এ বিষয়ে কল্যাণময়বাবুর এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

বাংলা প্রশ্নপত্র বেরিয়ে যাওয়ার পর তিনি জানিয়েছিলেন, “এটাকে প্রশ্ন ফাঁস বলা যাবে না। পরীক্ষা বাতিলেরও কোনও প্রশ্ন নেই।”পর্ষদ যতই তাঁর দায় ঝেড়ে ফেলতে চাক, এই ঘটনাকে কেন্দ্রে করে শিক্ষা মহলে সমালোচনা শুরু হয়েছে।

গত বছর ময়নাগুড়ি জেলায় প্রশ্নফাঁসের ঘটনার পর, এ বছর কোমর বেঁধে নেমেছিল পর্ষদ। কিন্তু পর পর দু’দিনের ঘটনায় পরিষ্কার হয় গেল, নজরদারিতেই খামতি রয়েছে। নিরাপত্তারও বিরাট খামতি দেখা দিয়েছে। এখন দেখা যাক বাকি পরীক্ষা গুলোর কি হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here