ক্যাম্পাসের দাবীতে এবার ধরনা

0
38

নিজস্ব সংবাদদাতা নদিয়া : ছাত্রীদের নিরাপত্তা ইভটিজিং এর প্রতিবাদ ও ক্যাম্পাসের দাবীতে এবার ধরনা ও আন্দোলনে বসলেন নদিয়ার কল্যাণী ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন টেকনোলজির প্রায় ২০০ ছাত্ৰ ছাত্রী।

তাদের অভিযোগ ওয়েবেলের ৪ টি ঘর ভাড়া নিয়ে কেন্দ্রীয় স্তরের এই ইনস্টিটিউট চালানো হচ্ছে। বারংবার তারা মিশন ডিরেক্টর পার্থ প্রতিম চক্রবর্তীকে জানিয়েও কোনো ফল হয়নি।

তাই ছাত্রীদের নিরাপত্তা ও তাদের ভবিষ্যৎ এর কথা ভেবেই তারা আন্দোলনের পথ বেছে নিয়েছেন। তাদের অভিযোগ ২০১৪ সালে এই আই.আই.আইটি শুরু হলেও ৫ বছর পরও কোনো পরিকাঠামো উন্নয়ন হয়নি। লক্ষ লক্ষ টাকা বছরে খরচ হচ্ছে তাদের পড়াশুনায়।

অথচ তাদের কামপাসিং হয় না। আন্দোলনকারীদের দাবী অবিলম্বে ইভটিজিং বন্ধ করতে কর্তৃপক্ষর ব্যবস্থা নিতে হবে। ছাত্রীদের নিরাপত্তা দিতে হবে। পরিকাঠামো উন্নয়ন ও সঠিক কামপাসিং করতে হবে।

ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা আলাদা হস্টেলের ব্যবস্থা করতে হবে। নয়ত তাদের কোনো কেন্দ্রীয় স্তরের আই. আই. আইটির সাথে যুক্ত করা হোক যেহেতু কল্যাণী আই আই অইটি কেন্দ্রীয় স্তরেরই আই.আই.আইটি। তাদের আবেদনে সাড়া না দিয়ে এভাবে চলতে থাকলে, তাদের আন্দোলন তারা চালিয়ে যাবেন।

তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্র বলেন ৫০ একর জমি নিয়ে পিপিপি মডেলের আই.আই.আইটি করার কথা হয়েছিল। সে মত জমিও দেয় রাজ্য, কিন্তু ক্যাম্পাস তো দূরের কথা আজ পর্যন্ত সেই জমিতে একটি ইট‌ও পড়েনি।

প্রসঙ্গ টেনে এক ছাত্রী বলেন বহিরাগত ছেলেরা এসে তাদের ইভটিজিং করে। কলেজ চলাকালীন বহিরাগতরা কি করে কলেজের ভেতরে প্রবেশ করে ? বারংবার কর্তৃপক্ষকে বলা সত্বেও তারা প্রত্যেকবারই আশ্বাস দেয় বিষয়টি দেখছি দ্বিতীয়বার হবে না। কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here