মালদায় ৪৮ ঘণ্টার বন্ধের মিশ্র প্রভাব

0
37

মালদা- মালদায় ৪৮ ঘণ্টার বন্ধের মিশ্র প্রভাব পড়ল মালদা জেলা জুরে।কেন্দ্রীয় সরকারের , মূল্য বৃদ্ধি রোধ সহ বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে সারা ভারত সাধারণ ধর্মঘটে সকাল থেকেই মালদায় বিভিন্ন বাজার-হাট বন্ধ থাকলোও সকল সরকারি দফতরও স্কুল কলেজ খোলা থাকলেও সে ভাবে কোন মানুষ জনের সমাগম নেই ।

১২ দফা দাবিতে এআইইউটিইউসি সহ ১০ টি কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নের ডাকে৮ ও ৯ জানুয়ারি সারা ভারত সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার এই বন্ধকে সামনে রেখে ব্যবসায়ীদের একটা বড় অংশকে শীতের আমেজে পিকনিক পড়তে যেতে দেখা গিয়েছে।

যদিও এদিন সাত সকাল থেকেই স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার প্রধান অফিস গেটের সামনে পুলিশি নিরাপত্তা ব্যাপকহারে দেওয়া হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন সরকারি অফিস গুলির সামনেও থাকে পুলিশি নিরাপত্তা ও ব্যারিকেট। যদিও তুলনামূলকভাবে এদিন সরকারি বাস চলাচল করেছে অনেক বেশি।

বন্ধ সমর্থনকারী বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারের শ্রমিক স্বার্থবিরোধী আইন ও নীতির প্রত্যাহার, মূল্য বৃদ্ধি রোধ, বেকারদের কাজ , সকলের জন্য সামাজিক সুরক্ষা ও পেনসন, ন্যূনতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা, স্থায়ী কাজে ঠিক প্রথা বন্ধ , আট ঘন্টা শ্রম দিবস, বেসরকারিকরণ বন্ধ , সমকাজে সমমজুরি ও বন্ধ কল-কারখানা খোলাসহ ১২ দফা দাবিতে এ আই ইউ টি ইউ সি সহ দশটি কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নের ডাকে দুই দিন ধরে শুরু হয়েছে সারা ভারত সাধারণ ধর্মঘট।

এদিন সকাল থেকেই মালদা শহরের প্রাণকেন্দ্র রথবাড়ি এলাকাতেই বিশাল পুলিশ বাহিনী নামানো হয় । এছাড়াও জাতীয় সড়ক ও রাজ্য সড়কের জায়গায় জায়গায় পুলিশের টহলদারি ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয় ।

কোন রকম সরকারি-বেসরকারি যান চলাচলে বাধা দেওয়া যাতে না হয় সেদিকে নজর রাখে পুলিশ। তবে এদিন স্বাভাবিকভাবেই বিভিন্ন সরকারী অফিস খোলাই ছিল ৷

বন্ধ হয়েছিল বাজারহাট গুলি। এই বন্ধকে সামনে রেখে সাধারণ মানুষ ব্যবসায়ীদের একাংশ ছুটির আমেজ নিয়ে দিন কাটিয়েছেন।পুলিশ ও প্রশাসনের সূত্র থেকে শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত এই বন্ধকে ঘিরেমালদায় কোন ধরনের বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটে নি । সাধারণ ও গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন হয়েছে। কোন গ্রেপ্তারের খবর এখন পর্যন্ত পাওয়া যায় নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here