আদিবাসী সমাজকে নতুন দিশা দেখালো শালবনীর আদিবাসী মেলা, দেবস্থানের পাট্টা তুলে দেওয়া হলো সমাজপতিদের হাতে

0
37

নিজস্ব প্রতিনিধি : ১৫ ই জানুয়ারি, শালবনী ঃঃ স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন পালনের সাথে সাথে গত ১২ ই জানুয়ারি থেকে শালবনীর খসলা ইন্দুমতী উচ্চ বিদ্যালয়ে আদিবাসী মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এই মেলাতে আদিবাসী সমাজপতিরা অংশগ্রহণ করে ও আদিবাসী যুবসমাজ মেলার পরিচালন সমিতিতে সক্রিয়ভাবে অংশ নেয়।

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী আদর্শে অনুপ্রাণিত পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বন ও ভূমি কর্মাধ্যক্ষ নেপাল সিংহ, এই মেলাতে “দেবস্থানের অধিকার” আদিবাসী সমাজপতিদের হাতে তুলে দিয়ে আদিবাসী আন্দোলনে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করেন।

এখানে উল্লেখ্য অধিকাংশ আদিবাসী সমাজের দেবস্থানগুলি বন দপ্তরের অধিকারে। সেই জায়গায় আদিবাসীদের অধিকারের দাবি দীর্ঘদিনের। নেপাল সিংহ এর উদ্যোগে সেই জঙ্গলের অধিকার শালবনীতে জঙ্গলের ভূমিপুত্রদের হাতে তুলে দেওয়া হয় এবং জমির পাট্টা গ্রহন করেন শালবনীর আদিবাসী সমাজপতিরা। এছাড়া তিনদিন ব্যাপী এই মেলাতে যুগ পুরুষ বিবেকানন্দের বানী ও আদর্শ তুলে ধরা হয়। সরকারের সাফল্যের খতিয়ান বিভিন্ন স্টলের মাধ্যামে শোকেস করা হয়। সাধারন মানুষদের মনোরঞ্জনের জন্য জেলা তথ্য সাংস্কৃতিক দপ্তর থেকে সন্ধ্যায় মনোজ্ঞ অনুষ্টানের মাধ্যমে বাংলার লোকশিল্প গুলি তুলে ধরা হয়। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শালবনী পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মিনু কোয়াড়ী, বিডিও সঞ্জয় মালাকার, জয়েন্ট বিডিও শান্ত চক্রবর্তী ও অনগ্রসর উন্নয়ন আধিকারিক সহ কর্মাধ্যক্ষ সন্দীপ সিংহ,শুকলাল টুডু, কাসেম খাঁ, নিবেদিতা ব্যানার্জী, বুল্টি সিং সহ অনান্য আধিকারিকরা, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহ অনান্য শিক্ষক শিক্ষিকা,ছাত্র ছাত্রীরা ও ২ নং বিষ্ণুপুর এর প্রধান,উপ প্রধান, বিশিষ্ট কবি মৃনাল কোটাল,সমাজসেবী কোশিক হাজরা,মৃনাল কোয়াড়ী সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here