নিজস্ব প্রতিবেদন : দলবদলুরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বেড়িয়ে যাক,সময়ের সঙ্গে সব বোঝা যাবে’,কীসের ইঙ্গিত দিলীপের ? একুশের নির্বাচনের অনেক আগেই ঘাসফুল ছেড়ে বিজেপিতে চলে গিয়েছিলেন সব্যসাচী দত্ত। আর একুশের নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর আবার তিনি জোড়া খুলে ফিরলেন। মুকুল রায়ের হাত ধরে তৃণমূলের মায়া কাটিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। আবারো তিনি পুরনো দলে ফিরেছেন। বিধানসভায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় ফিরহাদ হাকিম এর হাত ধরে ঘরে ফেরেন সব্যসাচী দত্ত।

এই বিষয়ে আজ দিলীপ ঘোষ বলেন এরা যত তাড়াতাড়ি চলে যায় ততই ভাল হয়। তাহলে বিজেপি গুছিয়ে কাজ করতে পারে।‌এরকম কিছু লোক আছে।বোঝা যাচ্ছে না।তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব বোঝা যাবে। দলের তরফ থেকে কোনো খামতি রাখা হয়নি।যখনই যে এসেছেন তাদের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে।পদ দেওয়া হয়েছে।এরা ঠিক করতে পারছেন না।

ভয়ের পরিবেশ চলছে বলে অনেকে বেড়তে চাইছেন না। যারা পার্টিকে দাড় করিয়েছেন তারা সব ঠিক আছেন।একের পর এক এসেছিল একের পর এক যাচ্ছে আসা-যাওয়া লেগে থাকে রাজনীতিতে। এদের জন্য রাজনীতিতে কোনো প্রভাব পড়ে না। অপরদিকে সারা দেশের নজর এখন একটাই শাহরুখের ছেলে আরিয়ান খান কবে ছাড়া পাবে। এনসিবি দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে গ্রেফতার করে। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, পুলিশ যেটা করছে ঠিক করছে।কারোর যদি ন‍্যায় চাইতে হয় তাহলে আদালতে যেতেই পারেন।

ছবি: সংগৃহীত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here