যোগীর রাজ্যে এবার দিতে হবে গো-কল্যাণ সেসঃ বেওয়ারিশ গোমাতারা থাকবে সরকারি আশ্রয়স্থলেই

0
24

নিজস্ব প্রতিনিধি : বুলন্দশহরে পুলিশকর্মী খুনের পরও মুখ্যমন্ত্রী যোগী যখন গো-হত্যা নিয়েই বেশি চিন্তিত ছিলেন। তখন ক্ষুব্ধ বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, মানুষের প্রাণের চেয়েও গরুর প্রাণের দাম বেশি। এবার সেই অভিযোগকেই সত্যি বলে প্রমাণিত করল উত্তরপ্রদেশ সরকার।

মঙ্গলবার রাজ্যের বিধানসভায় রাস্তার গরুদের জন্য অস্থায়ী ‘‌গোবংশ আশ্রয়স্থল’‌ তৈরির অনুমোদন পাশ হল। পাশাপাশি গরুদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য চালু হচ্ছে ‘‌গো-কল্যাণ সেস’ও।

৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোটে ভরাডুবি হয়েছে পদ্মের। শরিকদের গলাতেও এখন বিরোধীতার সুর। কিন্তু তারপরও নিজেদের গো-রাজনীতি থেকে সরছে না বিজেপি। বরং আরও এক ধাপ এগিয়েই বেওয়ারিশ গরুদের জন্য এই সরকারি আশ্রয়স্থল তৈরির এই সিদ্ধান্ত নিল উত্তরপ্রদেশ সরকার।

বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকেই এই গো-আশ্রয়স্থল তৈরিতে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছেন যোগী আদিত্যনাথ।

একইসঙ্গে এই সরকারি গোশালা চালানোর খরচের বন্দোবস্তও করেছেন যোগী। সরকারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, খরচের জন্য ২ শতাংশ গো-কল্যাণ সেস ধার্য করা হবে এবার থেকে। বিভিন্ন লাভজনক সংস্থা, বাজার কমিটি-র আয়ের উপর এই কর ধার্য করা হবে। পাশাপাশি প্রাণীসম্পদ বিকাশ দফতরের সহায়তায় ধীরে ধীরে স্বাবলম্বী হওয়ার চেষ্টা করবে এই ‘গোশালা’গুলি।
সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে, অস্থায়ী এই গোশালাগুলি রাজ্যের প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েত ও পুরসভা এলাকায় একটি করে এরকম আশ্রয় তৈরি করা হবে। প্রত্যেকটি জেলার শহর ও গ্রামীণ এলাকায় গড়ে তোলা হবে এমনই গোশালা, যাতে থাকবে ১০০০টি গরু রাখার মতো পরিকাঠামো। জানা গেছে, গোবংশ আশ্রয়স্থল নির্মাণখাতে স্থানীয় প্রশাসনগুলির জন্য ইতিমধ্যেই ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এর জন্য আবগারি, মাণ্ডি পরিষদ-সহ অন্যান্য লাভজনক সংস্থায় ২ শতাংশ শুল্ক ধার্য করা হয়।
মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানান, পশুপালন দফতরের সাহায্য থাকলেও গোশালাগুলিকে স্বতন্ত্র হতে হবে। রাস্তার গরুদের রক্ষা ও যত্নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে গত সপ্তাহেই নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। দখল জমি খালি করে সেখানে গো-চারণভূমি তৈরি করারও নির্দেশ দেন তিনি। তবে এ নিয়ে আসরে নেমে পড়েছে বিরোধীরা। এতদিনের অভিযোগই যেন আরও জোরালো হল এবার। তাদের দাবি, মানুষের দুর্দশা নয়, বেওয়ারিশ গোমাতাদের ‘ঘর ওয়াপসি’ নিয়েই বেশি ভাবিত যোগী সরকার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here