এবার শুভেচ্ছা জানিয়ে মমতার চিঠি যাবে বাড়ি বাড়ি

0
44

নিজস্ব প্রতিবেদক :সঙ্গে থাকুন, ভালো থাকুন। নিজের হাতে সই করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শুভেচ্ছা বার্তা এবার পৌঁছে যাবে রাজ্যবাসীর ঘরে ঘরে।

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে মোবাইল অ্যাপ বা অন্য নানা প্রযুক্তির সাহায্যে নিজেদের সংযোগের বৃত্ত তৈরি করতে সচেষ্ট নরেন্দ্র মোদী থেকে রাহুল গান্ধী সকলেই।

কিন্তু শুধু প্রযুক্তির ভরসায় না থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিঠি পাঠাতে চান নিজের হাতে সই করে। যে চিঠি মারফত প্রাপকের হাতে পৌঁছে যাবে মুখ্যমন্ত্রীর ‘ব্যক্তিগত’ ছোঁয়াও।

গত সাড়ে সাত বছরে মমতা সরকারের আমলে রাজ্যের নানা কল্যাণমূলক প্রকল্পের সুবিধা যাঁরা পেয়েছেন, তাঁদের সঙ্গেই ব্যক্তিগত স্তরে যোগাযোগ করে ‘ধন্যবাদ’ জানাতে চান স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী।

গত সাড়ে সাত বছরে নানা দফতরের অধীনে অজস্র জনকল্যাণমূলক প্রকল্প হাতে নিয়েছে মমতার সরকার।

সেই সব প্রকল্পের সুবিধা সাধারণ মানুষ ঠিকমতো পাচ্ছেন কি না, জেলায় জেলায় প্রশাসনিক বৈঠকে গিয়ে তার নিয়মিত খোঁজ নেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই। বিভিন্ন দফতর আলাদা ভাবে পৃথক প্রকল্পের খতিয়ান রাখে।

এবার সেই সব সংখ্যা মিলিয়ে এক জায়গায় এনে নাম-ঠিকানা দেখে প্রকল্পের সুবিধা প্রাপকদের কাছে মুখ্যমন্ত্রীর নিজে হাতে সই করা চিঠি পৌঁছে দেওয়া হবে। সরকারি এক আধিকারিকের কথায়, ‘যাঁরা এত দিন প্রকল্পের পরিষেবা পেয়েছেন, তাঁরা এ বার মুখ্যমন্ত্রীর চিঠিও পাবেন।’
সরকারি সূত্রের খবর, ২০১১ সালের ২০ মে ( যে দিন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা প্রথম বার শপথ নিয়েছিলেন) থেকে যাঁরা রাজ্যের নানা প্রকল্পের সুবিধাপ্রাপক, তাঁদের সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য দ্রুত সঙ্কলনের জন্য নির্দেশ জারি হয়েছে।

মুখ্যসচিব অন্যান্য দফতরের সচিবদের সঙ্গে আলোচনায় তাঁদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন। এর পরে জেলাশাসকেরা নিজেদের জেলায় বিভিন্ন সরকারি আধিকারিকদের ডেকে প্রস্তুতি বৈঠক করছেন। সুবিধাপ্রাপকদের কাছে কারা কী ভাবে মুখ্যমন্ত্রীর চিঠি পৌঁছে দেবেন, সেই প্রক্রিয়াই চূড়ান্ত করার কাজ চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here