নিজস্ব প্রতিনিধি : রাত পোহালেই ব্রিগেড সমাবেশ। তাতে যোগ দেবেন বিজেপি বিরোধী সব রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীরা। তার ঠিক আগেই তৃণমূল সুপ্রিমোর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার বিষয়টিকে ফের উসকে দিলেন বিজেপি নেতা শত্রুঘ্ন সিনহা।

বিহারের পাটনা সাহিবের সাংসদের কথায়, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর শুধু আঞ্চলিক নেত্রী নন। এখন তিনি সারা দেশের নেত্রী’।

মমতার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা আছে বলে আগেই মন্তব্য করেছিলেন প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী যশবন্ত সিনহা। দুদিন আগেই বাংলার প্রাক্তন রাজ্যপাল এম কে নারায়ণন বলেছিলেন, দেশের বাকি নেতাদের থেকে মমতা অনেক বেশী যোগ্য। অনেকটা এই সুরেই মমতাকে সমর্থন জানিয়েছিলেন আরেক প্রাক্তন রাজ্যপাল গোপালকৃষ্ণ গান্ধী।

এবার তারই প্রতিধ্বনি শোনা গেল বিজেপি সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহার গলাতেও।
ব্রিগেডের সভায় যোগ দেওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রীত্বের প্রশ্নে বিহারিবাবু বলেন, ‘ভোটের পর মানুষের মানুষের রায় পেলে বিরোধী শিবিরের সব দল বসে প্রধানমন্ত্রী ঠিক করবে। কিন্তু একথা বলাই যায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য অত্যন্ত যোগ্য ব্যক্তিত্ব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁর নেতৃত্ব শুধু আঞ্চলিক স্তরে সীমাবদ্ধ নেই, এখন তিনি জাতীয়স্তরেও প্রথম সারির নেত্রী’।
শত্রুঘ্ন জানান, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস-সহ আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ ফ্রন্ট তৈরি করেছেন। ইতিমধ্যেই তাঁর ফর্মুলা বহু জায়গায় কাজে লেগেছে। হিন্দী বলয়ের তিন রাজ্যে গোহারা হেরেছে বিজেপি। সেই ফ্রন্টকেই শক্তিশালী করতে চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here