মদনমোহন সামন্ত, ৯ জুলাই, কলকাতা : অধীর চৌধুরীকে সরিয়ে পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদে আনা হয়েছিল “ছোড়দা”কে।

রাহুল গান্ধীর নিজের ছাড়াও জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া সহ দেশের অন্যান্য রাজ্যের রাজ্য সভাপতিদের পদত্যাগের মত পশ্চিমবাংলাতেও লোকসভা নির্বাচনের ব্যর্থতার দায় নিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি “ছোড়দা” সোমেন মিত্র সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে সারাদেশে প্রায় ভরাডুবি হয়েছে কংগ্রেসের।

আশা জাগিয়েও হতাশা ব্যঞ্জক ফল করেছে তারা। রাজ্যে শুধুমাত্র বহরমপুর ও মালদহ দক্ষিণ এই দুটি মাত্র আসন পেয়ে টিমটিম করে জ্বলে হারিয়ে যাওয়ার লজ্জা থেকে কিছুটা নিষ্কৃতি পেয়েছে কংগ্রেস। দেরিতে হলেও সোমেন মিত্রর পদত্যাগের ইচ্ছা এআইসিসি অবশ্য প্রাথমিকভাবে নাকচ করে দিয়েছে।

আপাতত তাঁকে কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে বলে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। তবে পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেসের অন্দরে আনাচে-কানাচে কান পাতলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদে সোমেন মিত্রর পরিবর্তে আবার অধীর চৌধুরীকে ফিরিয়ে আনার।

এই বিষয়ে এআইসিসির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে ধরে নিয়েও প্রচ্ছন্নভাবে অধীর দা’কেই “ছোড়দা”র পদে পুনর্বহাল করার জন্য চাপ সৃষ্টির কৌশল তৈরি হচ্ছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র জানিয়েছে।সামগ্রিক ভাবে সংগঠন দুর্বল ও ব্যর্থতার দায় নিয়েই পদ সরে দাঁড়ালেন সোমেন মিত্র ৷ সোমেন মিত্রকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল অধীর চৌধুরীর জায়গায় ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here