গৌরনাথ চক্রবর্ত্তী, ৬ জুলাইঃজয়ের জন্য ২৬৫ রানের লক্ষ্য মাত্রা নিয়ে খেলতে নেমে ভারত ৪৩.৩ ওভারে ৩ উইকেটে ২৬৫ রান করে তোলে।রহিত ও রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে

ভারত ৭ উইকেটে শ্রীলঙ্কাকে হারায়।
এর আগে এদিনভারতকে ২৬৫ রানের টার্গেট দেয় শ্রীলঙ্ক।

বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচে ভারত ও শ্রীলঙ্কা মুখোমুখি হয়।ভারত ইতিমধ্যেই পৌঁছে গেছে সেমিফাইনালে।যদিও প্রতিপক্ষ কে সেটা এখনও ঠিক হয় নি।
শনিবার লিডসে টসে জিতে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে ব্যাটিং নেওয়ার সির্দ্ধান্ত নেন।

শ্রীলঙ্কা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৬৪ রান করে।দিমুথ করুণারত্নে ১০ রান করে আউট হন।পেরেরা ১৮ রান করেন।আর্বিষ্কা ফার্নান্দো ২০ রান করে।কুশল মেণ্ডিস ৩ রান করেন।অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন।ম্যাথিউজ ১১৩ রান করে আউট হন।থিরিমানে ৫৩ রান করেন।পঞ্চম উইকেটে
ম্যাথিউজ ও থিরিমানে ১২৪ রানের পার্টনারশিপ করে।
এদিন ভারতের দলে দুটি পরিবর্তন করা হয়েছে।মহম্মদ শামি ও যুজবেন্দ্র চাহালের জায়গায় দলে এসেছেন রবীন্দ্র জাডেজা ও কুলদীপ যাদব।

ভারতের পক্ষে বুমরাহ ১০ ওভারে ৩৭ রানের বিনিময়ে ৩ টি উইকেট নেন।ভুবনেশ্বর, পাণ্ডিয়া, জাডেজা ও কুলদীপ যাদব প্রত্যেকে ১ টি করে উইকেট নেন।
ভারতের দুই ওপেনার দুর্দান্ত শুরু করেন।রহিত ও রাহুল প্রথম উইকেটে ১৮৯ রানের দুর্দান্ত পার্টনারশিপ গড়েন।
রহিত ও রাহুল দুজনেই এদিন সেঞ্চুরি করেন।হিটম্যান রহিত শর্মা ২০১৯ বিশ্বকাপে ৫ টি সেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ড করলেন।এদিন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৯২ বলে ১০০ রান করেন রহিত।এতদিন কোনোও বিশ্বকাপে সর্বাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ডটি ছিল শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারার দখলে।তিনি ২০১৫ বিশ্বকাপে সর্বাধিক ৪ টি সেঞ্চুরি করেন।রহিত শর্মা ৯৪ বলে ১০৩ রান করে আউট হন।কে এল রাহুল দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন।তিনি ১১৮ বলে ১১১ রান করে আউট হন।ঋষভ পন্থ ৪ রান করেন।বিরাট কোহলি ৩৪ রানে অপরাজিত থাকেন।পাণ্ডিয়া ৭ রানে অপরাজিত থাকেন।শ্রীলঙ্কার পক্ষে লাসিথ মালিঙ্গা, ইসরু উদানা,কসুন রজিতা ১ টি করে উইকেট নেন।
অন্য একটি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা মুখোমুখি হয়েছে।ওই খেলার রেজাল্ট পর ঠিক হবে বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ভারতের প্রতিপক্ষ কোন দল হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here