শ্যামলেন্দু মিত্র # রাহুল গান্ধীর সাহস আছে।  আবার ভয়ও আছে।

তাই তিনি লোকসভা ভোটের ফল প্রকাশের পরে পরেই কংগ্রেসের সভাপতি পদ ছাড়তে চান। শেষ পর্যন্ত তিনি তার সিদ্ধান্তে অবিচল থেকে পদত্যাগের কথা প্রকাশ্যে জানিয়ে দিয়েছেন।

এবার নিশ্চিন্তে বিদেশে গিয়ে আরাম করতে পারবেন।

# কিন্তু, রাহুল গান্ধীর এখন উচিত সাংসদ পদও ছেড়ে দেওয়া।

# তারপর আগামী ৫ বছর  গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে গিয়ে কংগ্রসের একজন সাধারণ সদস্য হিসেবে কাজ করা।

পায়ে হেটে,সাইকেলে চেপে গ্রামে গ্রামে ঘোরা। সাধারণ ভারতবাসী কী চায়,তা বোঝা।

# রাহুল গান্ধীর রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা অধীর চৌধুরির থেকেও কম।

# ইন্দিরা গান্ধীকে নেহরু তৈরি করেছিলেন গড়েপিটে।

রাজীব গান্ধীকে আসতে হয়েছিল বাধ্য হয়ে।

সোনিয়া গান্ধী এসেছিলেন আবেগে। আর রাহুল এলেন মায়ের হাত ধরে।

# রাহুলের নেতৃত্বে দুটো লোকসভা ভোটে কংগ্রেসের ভরাডুবি।

এখন গান্ধী পরিবারের হাত থেকে কংগ্রেস মুক্ত হতে পারলে তা দলের মঙ্গল।

# এমনিতেই নানা ঝামেলায় জর্জরিত গান্ধী-বঢরা পরিবার।

মা-বেটা জামিনে রয়েছেন৷

মেয়ে-জামাইও  জমি বিতর্কে।

# ন্যাশনাল হেরল্ড পত্রিকার কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে দেশ জুড়ে। সেই পত্রিকা সংস্থাকে কিনেছে ইয়ং ইন্ডিয়া নামে একটি সদ্য স্থাপিত সংস্থা। সেই সংস্থার মালিকানায় রয়েছেন গান্ধী পরিবার। ওই সংস্থাকে আবার ৫০ কোটি টাকা ধার দেয় কংগ্রেস দল। ৫০ কোটি টাকার কোম্পানি ৫০০০ কোটি টাকার স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির কোম্পানি অধিগ্রহণ করেছে।

# এই নিয়ে আর্থিক অনিয়মের ক্রিমিনাল কেস হয়। তাতে সেনিয়া-রাহুল দুজনকেই জামিন নিতে হয়। কেস চলছে।

# এই রাহুল গান্ধী আবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চৌকিদার-চোর বলে গলা ফাটালেন।

# আসলে গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ উঠেছে তার জবাব আর দিতে হলো না রাহুল গান্ধীকে। তিনি তো রণে ভঙ্গ দিলেন।

তিনি এখন বিদেশে যাবেন।

আরামে থাকবেন।

মাঝে মাঝে সংসদে আসবেন।

# আর সোনিয়া গান্ধী কি এবার  কংগ্রেসের  সুপ্রিমো থেকে সরে যাবেন?

# প্রিয়াঙ্কা গান্ধী-বঢরা কী করবেন?

# কংগ্রেস কি গান্ধী পরিবার থেকে মুক্ত হতে পারবে?

যদি কংগ্রেস গান্ধী পরিবার থেকে মুক্ত হতে পারে তাতে দলেরই মঙ্গল।

# নেহরু-ইন্দিরা-রাজীবের নেতৃত্ব ছিল সফল।

# ইন্দিরা-রাজীব গান্ধীর আত্মত্যাগ ভারতবাসী চিরকাল মনে রাখবে।

# কিন্তু সোনিয়া-রাহুল তো পুরোপুরি বিফল।

# সোনিয়ার হাতে কংগ্রেস যেদিন থেকে গেল,সেদিন থেকে তিনি নিজে ও পুত্রকে প্রধানমন্ত্রী ব্যস্ত হয়ে উঠলেন।

# সোনিয়া গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নিতে দেননি রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালাম। ইতালীতে জন্ম বলে আপত্তি ওঠে।

# আর রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে পরপর দুটি লোকসভা ভোটে কংগ্রেস প্লাস-মাইনাস ৫০ টি সিট পায়।

ফলে রাহুল গান্ধীর প্রধানমন্ত্রীর দাবিদারের বেলুন চুপসে যায়।

এখন তার পদত্যাগ করা ছাড়া আর পথ খোলা ছিল না।

# কিন্তু খোলা আছে কংগ্রেস কর্মী হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করা।

# তার জন্য তাকে বেছে নিতে হবে কংগ্রেসের তৃণমূল স্তরকে।

# তাকে ভাবতে হবে তিনি কংগ্রেসের সেবাদল কর্মী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here