পল মৈত্র,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ কাটমানি নিয়ে টালমাটাল ঘটনার পরেই সংবাদ মাধ্যমের অফিসে খামবন্দী চিঠি এলো তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়া বিপ্লব মিত্রের নামে।

যেখানে রয়েছে ঠিকাদারী থেকে চাকরি দেবার নামে কোটি কোটি টাকা তোলার অভিযোগ। ওই চিঠিতে লেখা আছে জেলায় পঞ্চায়েত থেকে পৌরসভা ও পিডাব্লুডি থেকে পিএইচই সব কাজে টেন্ডার মেলাতে দিতে হতো ১০ শতাংশ টাকা।

আর এই সব কিছুর হিসাব করলে খুব সহজ হিসাবেই আসবে ৪০ থেকে ৫০ কোটি টাকা। যার উল্লেখ করা হয়েছে এই চিঠিতে।

এছাড়াও হিলি সীমান্ত ব্যাবসা অথবা অন্যকিছু খাত থেকেও উল্লেখ করা হয় বছরে কয়েক কোটি টাকার কাটমানির কথা। এই সব কিছু বাদেও চাকরি দেবার নামে প্রার্থী প্রতি ৫ থেকে ১০ লক্ষ এমনকি এর থেকেও বেশী টাকা তোলার অভিযোগ করা হয় চিঠিতে।

সব কিছুতেই নাম লেখা হয়েছে বিপ্লব মিত্রের। এক সময় খোদ বিজেপি জেলা সভাপতিই তোপ দেগেছিলেন বিপ্লব মিত্রের বিরুদ্ধে। কিন্তু তা সত্ত্বে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের চাপে বিজেপিতে এসেছে বিপ্লব মিত্র। বিজেপি সুত্রে জানা গেছে দল তাকে উত্তরবঙ্গের দায়িত্ব দিয়েছে।

কিন্তু একের পর এক যেভাবে বিপ্লব মিত্রের বিরুদ্ধে কাটমানির অভিযোগ উঠে এসেছে তাতে বেশ চাপে বিপ্লব বাবু, সেই সঙ্গে এই কাটমানি আদায়ে নাম জড়িয়েছে তার দুই ভাই প্রশান্ত মিত্র ও চিরঞ্জীব মিত্রের। এই সব ঘটনার পর এবার তদন্তে নামতে পারে পুলিশ বলে সুত্রের খবর। যদিও এই বিষয় নিয়ে বিপ্লব বাবুর কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here