বিদেশি বিনিয়োগেও গুজরাতকে টেক্কা দিল মমতার বাংলা

0
31

নিজস্ব প্রতিনিধি :এবার বিদেশি বিনিয়োগে গুজরাতকে টেক্কা দিল বাংলা। পশাপাশি ছোট ও মাঝারি শিল্পে সারা দেশের মধ্যে প্রথম সারিতে উঠে এসেছে বাংলা। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার পেশ করা রিপোর্টে মিলেছে এই তথ্য।

জানা গেছে, বাংলায় আসা প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ প্রায় ৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা। চলতি আর্থিক বছরের প্রথম তিন মাসে ওই অঙ্কের বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে রাজ্যে।সেখানে গুজরাত থমকে গিয়েছে ২ হাজার ৭৮৬ কোটি টাকায়। অর্থাৎ এফডিআইয়ের নিরিখে চলতি আর্থিক বছরের গোড়াতেই গুজরাতকে টেক্কা দিয়েছে বাংলা।

প্রসঙ্গত, গত বছর রাজ্যে বিদেশি বিনিয়োগ এসেছিল ১ হাজার ৪০৯ কোটি টাকা। তার আগের বছর, অর্থাৎ ২০১৬-’১৭ অর্থবর্ষে রাজ্যে এফডিআই এসেছিল মাত্র ৩৩২ কোটি টাকা।

কেন্দ্রীয় হিসেবেই স্পষ্ট, দু’বছর আগে গোটা দেশে যে বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে, এ বছরের প্রথম তিন মাসেই রাজ্যে সেই অঙ্ক ১২ গুণ বেড়েছে।
শিল্প মহলের ব্যাখ্যা যেখানে গত জুন মাস পর্যন্ত পাওয়া হিসেবে এই সাফল্য ধরা পড়েছে, সেখানে চলতি আর্থিক বছরের শেষে বিনিয়োগের পরিমাণ যে বেশ কয়েক গুণ বেড়ে যাবে, তাতে সন্দেহ নেই।

আসলে বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে রাজ্য যে পায়ে পায়ে অনেকটাই এগিয়ে গেছে, তা অনেকেরই অজানা। কারণ, দেশীয় পুঁজি টানার চেষ্টাকে রাজ্য সরকার যতটা প্রচারের আলোয় রেখেছে, ততটা সামনে আসেনি ফরেন ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট। অথচ দেখা যাচ্ছে, দু’বছর আগে যেখানে একবারে নীচের দিকে ছিল বিনিয়োগের অঙ্ক, সেখানে দু’বছরের মধ্যে একেবারে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে দাঁড়িয়েছে রাজ্য।
প্রতি বছর শিল্প সম্মেলন হয় বাংলায়। বিরোধীরা এই সম্মেলন নিয়েও কম কটাক্ষ করে না। কিন্তু সেই সম্মেলন যে বিনিয়োগের দুনিয়ায় প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে সেটা স্পষ্ট।দীর্ঘদিনের অচলায়তন সরিয়ে বাংলা যে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সেটাও এই রিপোর্ট থেকে পরিষ্কার। শিল্প মহলের মতে, যেভাবে বিদেশি বিনিয়োগের অঙ্কে কেল্লা ফতে করেছে বাংলা, দেশীয় বিনিয়োগও সেই পথে হাঁটতে বাধ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here