নিজস্ব প্রতিনিধি:  মৃতদেহ সৎকার করতে এসে দেহ নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে বসে থাকা মানুষদের হয়রানি রুখতে আরও একটি নতুন চুল্লী বসানোর সিদ্ধান্ত নিলো শিলিগুড়ি পুরনিগম। প্রায় এক কোটি পঞ্চান্ন লক্ষ টাকা ব্যায় করে কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাটে এই নতুন চুল্লী বসানো হবে। সাথে শ্মশানঘাটের বাইরের অংশকেও ঢেলে সাজিয়ে তোলা হবে।

দীর্ঘ সময় ধরে মৃতদেহ নিয়ে অপেক্ষারত মানুষদের স্বস্তি দিতে এবং শিলিগুড়ির কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাটের উপর চাপ কমাতে বেশ কিছুদিন আগে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের উদ্যোগে শহর সংলগ্ন সাহুডাঙ্গিতে তৈরি করা হয়েছিল একটি নতুন শ্মশানঘাট।

নতুন শ্মশানঘাট তৈরি হলেও বিন্দুমাত্র চাপ কমেনি কিরনচন্দ্র শ্মশান ঘাটের উপর। তাই সাধারন মানুষের হয়রানি কমাতে এবার কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাটে আরও একটি নতুন চুল্লী বসাতে চলেছে শিলিগুড়ি পুরনিগম।

পুরনিগমের মেয়র অশোক ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন, বর্তমানে কিরনচন্দ্র শ্মশানে দুটো চুল্লী থাকলেও প্রতিদিন একটি করে চুল্লী কাজে লাগানো হয়। ফলে মৃতদেহ নিয়ে মানুষকে দীর্ঘসময় অপেক্ষা করতে হয়। সাধারন মানুষের সুবিধার জন্য এক কোটি পঞ্চান্ন লক্ষ টাকা ব্যায়ে আরও একটি নতুন চুল্লী বসানো হবে।

এই নতুন চুল্লীটি তৈরী হয়ে গেলে একসাথে দুটো চুল্লী কাজ করবে। ফলে মানুষের সমস্যার অনেকটাই সমাধান হবে। একইসাথে অশোকবাবু আরো জানিয়েছেন কুড়ি লক্ষ টাকা ব্যায়ে কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাটের বাইরের অংশের সৌন্দর্য্যায়ন হবে এবং এর সাথে সাথে ত্রিশ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বিসর্জন ঘাটকেও সাজিয়ে তোলা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here