শিব শংকর চ্যাটার্জ্জী ঃ দক্ষিণ দিনাজপুরঃ এপার বাংলা- ওপার বাংলা দুই বাংলাতেই বাংলাভাষার মহান ঐতিহ্য বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে ও দুই বাংলার মধ্যে শান্তি, সম্প্রীতি, মহামিলনের ইচ্ছায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি-র ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের শূন্যরেখায় পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

একই সঙ্গে পালিত পালিত হল অমর একুশে ফেব্রুয়ারী শহীদ দিবস। এই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস তৎসহ অমর একুশে ফেব্রুয়ারী শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে এদিন হিলির ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের “শূন্যরেখায়’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার উপস্থিত ছিলেন
দুই বাংলার কবি, লেখক, গায়ক, নৃত্যশিল্পী থেকে শুরু করে কয়েক হাজার ভাষাপ্রেমী মানুষ।

বাংলাদেশের আমরা মুক্তি যোদ্ধার সন্তান কমান্ড, সাপ্তাহিক আলোকিত সীমান্ত, দিনাজপুর বাংলাদেশ সহ বাংলাদেশের অন্যান্য সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং ভারতের উজ্জীবন সোসাইটি, বালুরঘাট ছন্দম, উত্তরের রোববার এবং মেঘালয় তুরা করিডর কমিটি-র মত সংস্থাগুলির অংশগ্রহণের কারনে এদিনের এই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের অনুষ্ঠান ছিল শুরু থেকেই প্রাণবন্ত।

এদিনের এই অনুষ্ঠানে দুই বাংলার কবি এবং সাহিত্যিকদের সাহিত্য পাঠের আসর বসে। দুই বাংলার এই মিলন উৎসবে এদিন উপস্থিত ছিলেন
বাংলাদেশের আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমান্ড-এর কর্ণধার লিয়াকত আলী, আলোকিত সীমান্ত-র সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম এবং ভারতের উজ্জীবন সোসাইটি-র সম্পাদক সুরজ দাশ, উত্তরের রবিবার-এর কর্ণধার বিশ্বনাথ লাহা, মেঘালয় তুরা করিডর কমিটি-র কর্ণধার নবকুমার দাস। শুধু ভারত বাংলাদেশের হিলি সীমান্তেই শুধু নয়, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন জায়গায় এদিন পালিত হয় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here