রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হাসনাবাদ

0
31

বেঙ্গল ওয়াচ ডেক্সঃদীর্ঘদিন পর হিঙ্গলগঞ্জ এর রুপমারি পঞ্চায়েত সিপিএমের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে বছরই দখল করে তৃণমূল কংগ্রেস।

কিন্তু দীর্ঘ টালবাহানার পরে শুক্রবার ওই পঞ্চায়েতের পরিচালন সমিতির বোর্ড গঠনের উদ্যোগ নেন হিঙ্গলগঞ্জ এর বিধায়ক দেবেশ মন্ডল। শুক্রবার তার উপস্থিতিতেই বোর্ড গঠনের কথা থাকলেও তার আগেই তার গোষ্ঠীর কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে পঞ্চায়েতের কার্যনির্বাহী সভাপতি নিখিলেশ গাইন ও যুব সভাপতি সারদা দাসের বিরুদ্ধে।

বিধায়ক দেবেশ মন্ডলকে রুপমারি ঘাট থেকে স্বাগত জানাতে যাওয়ার পথেই তাদের উপরে লাঠি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় বলে অভিযোগ তোলেন পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি হাজারি মন্ডল।

হামলায় গুরুতর জখম হন হাজারী মন্ডলের ছেলে তপন মন্ডল, তৃণমূল নেতা জগদিশ মণ্ডল, স্বপন মন্ডল সহ অন্তত ৬ জন তৃণমূল কর্মী। গুরুতর জখম অবস্থায় সকলকে ভর্তি করা হয় টাকী গ্রামীণ হাসপাতালে।

হামলার সময় গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ তুলে হাজারী মন্ডল বলেন, ‘ ব্লকের ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজ কামাল গাজীর উস্কানিতে সারদা ও নিখিলেশ লোকজন নিয়ে হামলা চালিয়েছে আমাদের কর্মীদের উপর। বাম আমলেও এদের হাতেই হামলার শিকার হতে হয়েছিল আমাদের। এখনো দলের মধ্যে এদের উশ্রীঙ্খলার বিষয়ে উর্দ্ধতন নেতৃত্বকে জানিয়েও কোনো সুরাহা হচ্ছে না’।

শুক্রবার তৃণমূল কর্মীদের উপরে হামলার পিছনে উঠে আসা সারদা ও নিখিলেশ তৃণমূলের কর্মী না বলে উল্লেখ করে এই ঘটনার পিছনে বিজেপির ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন হিঙ্গলগঞ্জ এর বিধায়ক দেবেশ মন্ডল।

যদিও বিধায়কের এই বক্তব্যকে নস্যাৎ করে দিয়ে দলেরই ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজ কামাল গাজী জানান, ‘সারদা ও নিখিলেশ আমাদের দলেরই কর্মী। আজ একটা গন্ডগোল হয়েছে শুনেছি। তবে বিস্তারিত জেনে দলের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here