শ্রমিকের কফিনবন্দি দেহ ফিরল তার পরিবারের কাছে

0
24

অতনু গোস্বামী, নদীয়া:- নদীয়ার করিমপুর দুই নম্বর ব্লকের অন্তর্গত বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা পেশায় শ্রমিক নারায়ন ঝাঁ এর কফিনবন্দি মৃতদেহ শুক্রবার ফিরল গ্রামে তার পরিবারের কাছে।

পরিবার সূত্রে জানা যায় যে, সংসারে বৃদ্ধ মা স্ত্রী ও ছয় বছরের একটি শিশু কন্যাকে নিয়ে হতদরিদ্র পরিবারের আর্থিক উন্নতির কারণে কিছুদিন আগে মৃত নারায়ন বাবু তামিলনাড়ুতে গিয়েছিলেন ভালো কোন কাজের সন্ধানে।

তামিলনাড়ুতে কাজের অনেক সুবিধা রয়েছে কিছুদিনের মধ্যেই তিনি সংসারে টাকা পাঠাবেন বলে শেষবারের মতন ফোনে স্ত্রীকে জানিয়েছিলেন মৃত নারায়ন বাবু। এর পর এক দুর্ঘটনায় রেলের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু নারায়ন ঝাঁ এর।

নয়ন বাবুর মৃত্যুর সংবাদ বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে তার পরিবারের কাছে পৌঁছতেই যেন মাথার ওপর আকাশ ভেঙে পড়ে ঝাঁ পরিবারের। হতদরিদ্র ও আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল এই পরিবার কিছুতেই বুঝে উঠতে পারেনা মৃতদেহটি কি ভাবে তারা ফিরিয়ে আনবেন গ্রামে।

এই অবস্থাতে দুস্থ ও অসহায় ঝাঁ পরিবারের পাশে দাঁড়ান করিমপুরের বিধায়ক মহুয়া মৈত্র। বিধায়কের তৎপরতায় ও করিমপুর দুই নম্বর ব্লকের ভিডিও সাহায্যে মৃত শ্রমিক নারায়ন ঝাঁ এর কফিনবন্দি দেহ শুক্রবার বিকেলে ফিরল তার পরিবারের কাছে।
অসহায় পরিবারের পাশে সর্বত্র ভাবে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন বিধায়ক মহুয়া মৈত্র। এবং মৃত শ্রমিকের পরিবারের পাশে থেকে মৃতের বৃদ্ধ মায়ের বার্ধক্য ভাতা সহ স্ত্রী এর বিধবা ভাতার সুব্যবস্থা যথাযথভাবে অবিলম্বে করে দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন করিমপুর দুই নম্বর ব্লকের বিডিও সত্যজিৎ কুমার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here