নিজস্ব প্রতিনিধি: এক বিদেশি মহিলাকে গণধর্ষণ কান্ডে দোষী চার যুবককে আজ কুড়ি বছরের জেল ও চল্লিশ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের জেল এর শাস্তি শোনালো বারাসাত আদালত।

গত 18ই ফেব্রুয়ারি বারাসতের জেলা ও দায়রা আদালতের সপ্তম অতিরিক্ত বিচারক শুভাউ ব্যানার্জী আসামী শুভেন্দু নাগ,সৌরভ দে, সুব্রত দত্ত ও অর্ণব বেরা কে দোষী সাব্যস্ত করেন। তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির 3762A,376D,366ও 34 ধারায় যথাক্রমে অপহরণ,গণধর্ষন, বারংবার গণধর্ষণের মামলা করা হয়েছিল। আজ বিচারক তাদের পক্ষের আইনজীবীদের কাজ থেকে সবিস্তারে জানতে চান।

প্রসঙ্গত,গত 29/5/2016 তারিখে বছর ছাব্বিশ সাতাশ বছরের ওই নির্যাতিতা বিদেশি মহিলা সেক্টর ফাইভে থেকে সীমার্জ নামক এক স্থানে যেতে চান, পথে সেসময় গাড়ি নিয়ে এসে ওই চারজন যুবক অপহরণ করে ওই মহিলাকে  একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করে ।

পরে তাকে মধ্যমগ্রামের কাছে খুন করে ফেলে দেবার কথা নিজেদের মধ্যে বলাবলি করে। এদিকে এরাজ্যে থাকার সুবাদে বাংলা ভাষা খানিকটা জানতো ওই বিদেশি মহিলা। ফলে তড়িঘড়ি চলন্ত গাড়ি থেকে 206 বাস স্ট্যান্ড এর কাছে রাস্তায় ঝাঁপ দেয় তরুণী। তার সাথে ওই চার যুবকদের একজনের মোবাইলও পড়ে যায় রাস্তাতে। বেগতিক দেখে চম্পট দেয় ওই চার যুবক। কিন্তু গাড়িতেই থেকে যায় নির্যাতিতার মোবাইল।এই মোবাইলই পরে প্রমান হিসাবে আদালতে গ্রাহ্য হয়। কৌশলীদের মতে,পরবর্তী সময়ে টাওয়ার লোকেশনে দুটি ফোনেরই একই স্থানের অবস্থান নিশ্চিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here