তৃণমূলের ফ্ল্যাগ-ফেস্টুন-প্রতিকৃতি ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

0
39

নিজস্ব প্রতিনিধি:  মালদা- তৃনমূলের জনসভার   ২৪ ঘণ্টা আগে তৃণমূলের ফ্ল্যাগ, ফেস্টুন ও মুখ্যমন্ত্রীর ছবি ছিড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে ।

মঙ্গলবার সাত সকালে সকলের চোখে পরে আর তাতে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে পুরাতন মালদা থানার সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়।

ওই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার নিত্যানন্দপুর গ্রামের মাঠে বুধবার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান বক্তা থাকবেন দলের মালদার পর্যবেক্ষক তথা রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। সহ উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ , পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব সহ একাধিক প্রথম সারির নেতাদের ওই জনসভায় উপস্থিত হওয়ার কথা রয়েছে।

কিন্তু এই জনসভা হওয়ার ২৪ ঘণ্টা আগেই সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা জুড়ে তৃণমূল দলের ফ্ল্যাগ, ফেস্টুন, দলীয় ঝান্ডা ছেড়ার অভিযোগ উঠেছে ।

এমনকি দলনেত্রী মমতা ব্যানার্জি , মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারির ব্যানার ফেস্টুন এবং ছবি ব্লেড দিয়ে কেটে দেওয়া হয়েছে এবং পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

মঙ্গলবার সকালে এই ঘটনাকে ঘিরে স্থানীয় তৃণমূল নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।তারা সরাসরি বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন।

এছাড়াও পুরাতন মালদা থানার পুলিশের নজরদারির অভাবে দুষ্কৃতীরা এই ধরনের কাজকর্ম করতে সুযোগ পেয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। পুরো ঘটনাটি নিয়ে দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি করেছেন জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

তৃণমূল কংগ্রেসের জেলার কার্যকরী সভাপতি বাবলা সরকার বলেন, ২২ জানুয়ারি বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের সভা সুষ্ঠুভাবে হয়েছে।

যদিও তৃণমূলের এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন বিজেপি জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র। তিনি বলেন , এই ধরনের ঘটনায় দলের কেউ যুক্ত নয় ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here