পুলওয়ামায় জঙ্গি লুকিয়ে, রাতভর সেনার সঙ্গে  গুলির লড়াই,  তিন জওয়ান সহ হত ৪

0
47

 

সূর্য চট্টোপাধ্যায়, নদীয়া:- কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গী হামলার রেশ এখনও কাটেনি।

তার মধ্যেই ফের পুলওয়ামাতে-ই জঙ্গীর গুলিতে শহিদ হলেন ৩ জওয়ান সহ মোট ৪ জন। রাতভর গুলির লড়াইয়ের সময় শহিদ হন ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই ৩ জওয়ান। শহিদদের মধ্যে একজন সেনার অফিসারও রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ১ জন স্থানীয় বাসিন্দা আছে নিহতদের মধ্যে।

সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী হামলার পর কনভয় ঘিরে ধরে গুলিও চালিয়েছিল জঙ্গীরা। এই হামলার পর গোপন সূত্রে সেনা খবর পায়, পুলওয়ামাতেই এখনও লুকিয়ে আছে বেশ কিছু জঙ্গী। এই খবর পেয়েই গোটা এলাকায় তল্লাশি শুরু করেন জওয়ানরা। সঙ্গে ছিলেন জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ ও সিআরপিএফ জওয়ানরাও। স্থানীয় সূত্রে তাঁরা জানতে পারেন, পুলওয়ামার পিংলান এলাকায় ২-৩ জন জঙ্গী লুকিয়ে আছে।

সেখানে গেলে অতর্কিতে জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো শুরু করে জঙ্গীরা। পাল্টা উত্তর দেন জওয়ানরাও। তবে সেখানে ২-৩ জনের থেকে বেশি জঙ্গি ছিল বলেই জানা গিয়েছে সেনাবাহিনীর তরফে। রাতভর চলে এই গুলি বিনিময়। জঙ্গীরা গা ঢাকা দিয়ে থাকায় জওয়ানদের পক্ষে রাতের অন্ধকারে তাদের অবস্থান বোঝা কঠিন হয়ে পড়ছিল। এই গুলি বিনিময়ের সময় অফিসার-সহ ৩ জওয়ান শহিদ হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। এছাড়া একজন সাধারণ মানুষও এই গুলিবিনিময়ের মধ্যে পড়ে নিহত হয়েছেন বলে খবর।

সেনা সূত্রে খবর, এখনও গুলির লড়াই চলছে। পুরো এলাকা ঘিরে রয়েছেন জওয়ানরা। তল্লাশি চলছে জোরকদমে। জওয়ানদের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও মতেই জঙ্গীদের সেখান থেকে পালাতে দেওয়া হবে না। গুলি বিনিময়ে শহিদ জওয়ানদের নাম অবশ্য এখনও জানানো হয়নি।

অন্যদিকে সিআরপিএফ কনভয়ে হামলার পর সিআরপিএফ-এর তরফে জানানো হয়েছে, সুরক্ষা ব্যবস্থা আরও জোরদার করার কথা ভাবছে তারা। তাদের কনভয়ে আরও বিভিন্ন রকমের প্রযুক্তির ব্যবহার করা হবে বলে বলে জানিয়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here