সন্তানকে বাঁচিয়ে আগুনেই পুড়ে গেলেন মা , শোকস্তব্ধ দাসপুর

0
29

নিজস্ব সংবাদদাতা: ‘মা’ শব্দটি আরও একবার উজ্জল হয়ে উঠল এক অনন্য মায়ের আত্ম বলিদানে। আগুনের লেলিহান শিখা থেকে সন্তানকে নিরাপদে ছুঁড়ে দিয়ে আগুনেই লুটিয়ে পড়লেন মা।

 

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর থানা এলাকার এই মর্মান্তিক ঘটনায় শোক স্তব্ধ গোটা দাসপুর।আগুনেরও লজ্জা পাওয়া এই নজিরবিহীন ঘটনার স্বাক্ষী বালিপোতা গ্রাম।

 

পুলিশ জানিয়েছে , সোমবার রাত ১১টা নাগাদ আগুন লাগে গ্রামেরই একটি ক্ষেতমজুর পরিবার লখাই সিংয়ের বাড়িতে। ফিরে আসা শীতের প্রকোপে ছোটো কন্যা সন্তান আর স্ত্রী লতিকাকে লখাই নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন চাদরমুড়ি দিয়ে।

 

একটু দুরত্বে ১২বছর বয়সী কার্তিক, তাদের জ্যেষ্ঠ সন্তান। ঘুমের ঘরে টের পাননি কেউই যে কখন আগুনের ঘেরা টোপে বন্দী হয়ে গেছেন তাঁরা। নাক মুখ ধোঁয়ায় ভরে যাওয়ায় ঘুম ভাঙে লখাইয়ের, হতচকিত ভাব কাটিয়ে ছোট্ট মেয়েটিকে নিয়ে কোনও রকমে বাইরে আসেন দুজনেই। আর এসেই খেয়াল পড়ে কার্তিক রয়ে গেছে ঘরে।

কার্তিকের ঘুম ভেঙেছে ততক্ষনে। মূর্তমান আগুনে বন্দী হয়ে চিৎকার করে চলেছে মা মা বলে। না , এরপর যা হল তা হার মানাবে টলিউড , বলিউড এমনকি হলিউডকেও। প্রতিবেশীদের বাধা উপেক্ষা করেই মা ছুটলেন আগুনের মধ্যেই ।

১২ বছরের ছেলেকে পাঁজাকোলা করে তুলে ছুঁড়ে দিলেন আগুনের বাইরে , উঠোনে । তারপর নিশ্চিন্তে আগুনেই লুটিয়ে পড়লেন ৪২ বছরের লতিকা ।
প্রতিবেশীদের সহায়তায় আগুন ততক্ষন নিয়ন্ত্রনে । লতিকাকে বের করে নিয়ে যাওয়া হল দাসপুর গ্রামীন হাসপাতালে কিন্তু ততক্ষনে সব শেষ, মাকে মায়ের জায়গায় বসিয়ে লতিকা ছেড়ে দিয়েছেন পৃথিবীর মায়া ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here