নিজস্ব প্রতিনিধি :  মালদা হাসপাতালের মধ্যে আবার ধরা পড়ল এক মহিলা ছিনতাইবাজ ।  ধরার তাকে গণধোলাই দেওয়ার পর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় । এই ঘটনায় আবার মালদা হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও একবার প্রশ্ন উঠেছে।

কিছুদিন আগেই মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে মোবাইল চোর সন্দেহে এক যুবককে গণপিটুনি দেওয়া হয় । আজ আবার হাসপাতালের গেট থেকে এক রোগীর আত্মীয়র ব্যাগ ছিনতাইয়ের অভিযোগে এক মহিলাকে হাতে নাতে ধরে ফেলে স্থানীয় মানুষজন ।

শুরু হয় গণপিটুনি । এই সময় হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখান রোগীর আত্মীয়রা । মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা । খবর পেয়ে  ইংরেজবাজার থানা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে । যদিও পুলিশ আসার আগেই অভিযুক্ত ছিনতাইবাজ মহিলা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় ।

জানাগেছে, বৃহস্পতিবার মালদা শহরের বক্ষাটোলী এলাকার বাসিন্দা মায়া পারভীন তার অসুস্থ মাকে ভর্তি করান মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ।অভিযোগ,হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে আসার সময় এক অপরিচিত মহিলা মায়া দেবীর ব্যাগ ছিনতাই করার চেষ্টা করে।সেই সময় হাতে নাতে ধরে ফেলে অন্যান্য রোগীর পরিজনেরা।তারপরই মহিলারা ওই ছিনতাইকারী মহিলাকে ধরে চালাতে থাকে মারধর। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here