ফেস বুকের পোষ্ট দেখে সনাক্ত হলো অপরিচিত বৃদ্ধ

0
90

 

 

প্রায় মাস খানেক আগে আসানসোল জি আর পি এক বৃদ্ধকে স্টেশন থেকে উদ্ধার করে আসানসোল জেলা হাসপাতালে অচৈতন্য অবস্থায় ভর্তি করে।

ভর্তি থাকাকালিন জ্ঞান আসার পর জিজ্ঞাসবাদে কোন রকম কিছু জানা যায় নি ভাষার অন্তরায়ের কারনে।তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী কুমারেশ মিশ্র নিজ প্রচেষ্টায় ফটো তুলে ফেস বুকে পোষ্ট করে দেন এই আশায় যদি কেউ চিনতে পারে।ছবি দেখে কয়েকদিন আগে যাদবপুর থেকে একজন এসেছিলেন কিন্তু চাক্ষুষ দেখার পর তারা জানান তাদের হারিয়ে যাওয়া বাবা এই ব্যাক্তি নন।পাঁচদিন আগে কুমারেশ মিশ্র ঠান্ডার জন্য ঐ ব্যাক্তিকে একটি কম্বল দেবার ছবিটাও আবার ফেস বুকে পোষ্ট করে এবং কাগজ কলম দিয়ে ব্যাক্তিকে ফোন নং লেখার জন্য বলে আসেন।ভদ্রলোক অনেকগুলো ফোন নং লিখলেও একটা নং এ যোগাযোগ হয় অন্যদিকে ফেসবুকের পোষ্ট দেখে বেঙ্গালুরুর রমেশ নাইডুর বন্ধু রাণীগঞ্জের মহাবীর কোলিয়ারীর রিষভ সিনহাকে ফোনে জানায় শনাক্ত করতে।বুধবার সকালে রিষভ এসে ভদ্রলোককে শনাক্ত করে

।রিষভ জানায় ভদ্রলোকের নাম দাদি সূর্যনারায়না,বয়স ৮৫ বছর বাড়ী অন্ধ্রপ্রদেশে।প্রায় ২৫ দিন আগে কোন আত্মীয়কে ট্রেনে চাপাতে এসে চেন্নাই আসানসোল ট্রেনে ভুল করে চেপে যান,ওর বন্ধু রমেশের দাদু ঐ ভদ্রলোক।

ভদ্রলোকের দুই ছেলে এক জন অন্ধ্রপ্রদেশে কাজ করেন আরেক জন অষ্ট্রেলিয়াতে থাকেন।আসানসোল জেলা হাসপাতালের সুপার জানান খুবই ভাল লাগছে শুনে কিন্তু বাড়ীর আত্মীয় না আসলে এবং সঠীক পরিচয়পত্র না দিলে ছাড়া যাবে না।

ফেস বুকের পোষ্ট দেখে শনাক্ত করা সুদুর অন্ধ্রপ্রদেশের হারিয়ে যাওয়া বাবা তার ছেলেদের কাছে ফিরে যেতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here