মদনমোহন সামন্ত, কলকাতা : নির্বাচনী উত্তাপ প্রশমিত সুমুহূর্তময় উৎকন্ঠিত পলযাপনের শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছেন পরিস্থিতি বিশেষজ্ঞরা । শান্ত থাকুন। শিষ্ট থাকুন। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন। বিধান দিয়ে রেখে মহান কর্তব্য পালন করেছেন। এবার প্যান্ডোরার “বাস-কো” খুলে নিদান উপভোগ করার শক্তি সঞ্চয় করুন। নিদ্রামগ্ন অবস্থায় নতুন ভোরে শাঁখের করাতের যে “স্বপ্ন” দেখেছেন, জাগ্রত হয়ে শঙ্খধ্বনিতে তা ত্রিভূবনে বিলীন করে দিন।

মনে রাখুন আমরা ক্রীড়নক মাত্র। সুতো টানের উৎসসন্ধান করা বৃথা পণ্ডশ্রম। আমরা কারো “আপন পাঁঠা “। বিধি তো ললাটে লিপি চিত্রণ করেই মর্ত্যে মরার জন্য “মা” শিখন্ডীর মাধ্যমে “মাটি”তে “মানুষ” হতে মেল-ফিমেল আইডিতে পোস্ট করে পাঠিয়েছেন। কিন্তু ইভিএমে “জয় শ্রীরাম” টিপসই দিয়ে খোদার উপর খোদকারির ইচ্ছায় ভিভিপ্যাটের জানালায় প্যাট প্যাট করে উঁকিঝুঁকি মেরেও কি নিশ্চিন্তে “লাল” বিপ্লবের ঝড় দেখা গেল! যা গরম পড়েছে তাতে বর্ণান্ধ মানুষের মাথার ঠিক থাকছে না।

তা, সফট”চিপ”ওয়্যারের কী দোষ! বিগড়াবে ধরে নিয়ে কুলকুল না ঘেমে আপামর দেশবাসী “কুল” হয়ে পুনরায় “পিপুফিশু” হয়ে সুখনিদ্রা যান! চৌকিদার, পুলিস, সিআইডি, ইডি, সিবিআই, কেন্দ্রীয় বাহিনী মায় আর্মি পর্যন্ত ডিপ্লয়েড করা আছে আপনাদের সুরক্ষায়। অতএব, জন্মিলে মরিতে হবে। যতই কবীন্দ্র বলুক ‘মরিতে চাহি না আমি সুন্দর ভুবনে’। বি প্রাক্টিক্যাল, থিয়োরী ভাঁড় মে যায়ে….. মেরে ভাইয়োঁ ঔর বঁহেনো….. আমার মা, ভাই, বোনেরা ….. কি করেছ, তোমরা নিজেরাও জাননো না। যারা সবজান্তা, সব জানে, তারা লক্ষে পৌঁছে যাবে। অতএব “গো-পাল”দের সাত খুন মাফ। অষ্টম জান গোপালের।

ল্যাটা চুকে গেলে এভ্রিথিংগ পীসফুল। ওম শান্তি, শান্তির ওম পোহাও। রেস্ট ইন পিস, মানে আরআইপি ! নইলে পিস পিস “বোটি কাবাব”… তন্দুর ওভেনে। পঞ্চভূতে বিলীন ! কী আইডিয়া, মাইরি! পুরানো পচা বস্তার থিয়োরী, কিন্তু এফেক্টিভ, ভাতে বাড়ে, মারেও! তাই দেখ যতক্ষণ ললাটলিখন তালাবন্দি ততক্ষণ সবাই কেমন এক! দেখা হলে প্রশ্ন, রেজাল্ট কী হবে? নিজে কি করে এসেছে তা বলছে না। অন্যেরটা জানার চেষ্টা! দরকার নেই গবেষণার। একটু বৃষ্টি, একটু ঠান্ডা, একটু স্বস্তি চায় দলমতনির্বিশেষে সব্বাই। অদৃশ্য, অদৃষ্টপূর্ব একজন ছাড়া কেউ তা দিতে পারবে না। সামন্ত মদনমোহন, তাই সবার উপরে… নিদ্রাই শ্রেষ্ঠ ঔষধ!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here