নিজস্ব প্রতিনিধি :ত্রেতা যুগে যা হয়নি, কলিতে তাই করে দেখাল বিজেপি। হনুমানের ‘বার্থ সার্টিফিকেট’ হাজির করল তারা। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা হিন্দুত্বের পোস্টার বয় যোগী আদিত্যনাথ বললেন, বজরঙ্গবলী ছিলেন একজন ‘দলিত’।

এখানেই শেষ নয়। যোগী হনুমানকে ‘দলিত’ বলে না থেমে ‘লোকদেবতা’ এমনকি ‘বঞ্চিত’ও বলেন। এতে বেজায় খেপেছেন ব্রাক্ষণেরা।
এমন মন্তব্যের পর ফেঁসেও গিয়েছেন যোগী। তাঁর বক্তব্যে প্রবল ক্ষুব্ধ হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি। শঙ্করাচার্য স্বামী স্বরূপানন্দ সরস্বতী বলেন, ‘ঘোর অপরাধ করেছেন যোগী। হনুমানজী আবার কবে দলিত ছিলেন?’ রাজস্থানের ‘সর্ব ব্রাক্ষ্মণ মহাসভা’ আইনি নোটিস ধরিয়েছে যোগীকে।

হিন্দু সংগঠনগুলির কথায়, অষ্টসিদ্ধি প্রাপ্ত করেছেন হনুমান। তিনি গোটা দুনিয়ার বিজেপি। বারাক ওবামাও পকেটে হনুমানজীর ছবি রাখেন। সেই তিনি ‘দলিত’, ‘বঞ্চিত’? পৈতেধারী হনুমান দলিত? মহাভারতেও পবনপুত্রের উল্লেখ আছে। মহন্ত রাধেশ্যাম তেওয়ারি বলেন, ‘হনুমান দলিত ছিলেন, শাস্ত্রে কোথাও নেই’।

৭ ডিসেম্বর রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচন। তারই প্রচারে গিয়েছিলেন যোগী। যে কেন্দ্রে বক্তব্য পেশ করেছিলেন, সেটি তফশিলি জাতিদের জন্য সংরক্ষিত। ভাষণের জাদুতে সেইসব ভোটারদের মন জয় করতে গিয়েই বিপত্তি বাঁধান তিনি। হনুমানকেও দলিত, বঞ্চিত বলে ফেলেন।
যদিও যোগী সমর্থকদের বক্তব্য, ‘যোগীর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হয়েছে। তিনি বলতে চেয়েছিলেন, দলিত-দূর্বলদের একজোট করার কাজ করেছিলেন হনুমান। তিনি মোটেও হনুমানকে ‘দলিত’ বলেননি’। কিন্তু যোগীর ভাষণ শুনেছেন এমন ব্যক্তি এই ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট নাও হতে পারেন।
এমন বেফাঁস মন্তব্যের পরেই হিন্দুত্বের মুখকে বিঁধতে আসরে নেমে পড়েছে বিরোধীরা। তাঁদের দাবি, ‘জাতপাতের নামে ব্যক্তি, সমাজকে ভাগ করেও শান্তি হয়নি বিজেপির। এবারে দেবতাদের মধ্যেও বিভাজন করতে ময়দানে নেমে পড়েছে তারা’।

Poকংগ্রেসের অশোক গেহলটের কথায়, ‘হারের ভয়ে ঘাবড়ে গিয়েছে বিজেপি। তাই হনুমানেরও জাত বিচার করছে বিজেপি’। আর দ্বিগবিজয় সিংয়ের কথায়, ‘যোগী তো নিজের গোরক্ষনাথেরই অপমান করলেন’।
এমন ঘটনায় অসন্তুষ্ট খোদ বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও। এই নিয়ে প্রশ্ন করায় তিনি বলেন, ‘এটি তাঁর রামায়নের ব্যাখ্যা হবে। তিনিই এর জবাব দিতে পারেন’।
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, উচ্চবর্ণের দল বলে পরিচিত বিজেপি ভোটের মুখে সব হিন্দুকেই একজোট করতে চাইছে। সঙ্ঘের মুখেও তাই ‘দলিত’দের কথা শুনে যাচ্ছে। সেই তাস খেলতে গিয়েই সামান্য ভুলচুক করে ফেলেছেন যোগী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here