নিজস্ব সংবাদদাতা : বর্ধমানের রমনা বাগান অভয়ারণ্যে অবশেষে এসে পৌছালো দুটি চিতা বাঘ। যদিও এখনই সাধারণ দর্শকদের এই নতুন অতিথিদের দেখার সুযোগ হচ্ছে না। কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার পর আগামী দু সপ্তাহের মধ্যে চিতা বাঘ দুটিকে দর্শকদের জন্য নির্দিষ্ট এনক্লোসারে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে বনদপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে। বুধবার রাতে কোচবিহারের খয়েরবাড়ি এবং রসিকবিল থেকে বনদপ্তরের আধিকারিকরা চিতা দুটিকে বর্ধমান নিয়ে আসেন।

পশু চিকিৎসক তপন ঘোষ জানিয়েছেন, নতুন পরিবেশে মানিয়ে নিতে কিছুটা সময় লাগে যেকোনো পশুর। তার সঙ্গে এতদিন যে সব সঙ্গীদের সঙ্গে সময় কেটেছে ধ্রুবর, এখন থেকে তাদের পরিবর্তে নতুন মহিলা সঙ্গীর সঙ্গে মানিয়ে নিতেও কিছুটা সময় লাগবে। তাই সব দিক বিচার করে আগামি ১৫ দিন দুটি চিতাকেই পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তারপরই সঠিক সময়ে দর্শকদের সামনে খুলে দেওয়া হবে রমনা বাগানের নতুন আকর্ষণের কেন্দ্র বিন্দুতে থাকা চিতা বাঘ দুটিকে।

জেলা বনাধিকারিক দেবাশীষ শর্মা জানিয়েছেন, দুটি চিতার মধ্যে একটি পুরুষ ও অন্যটি মহিলা। পুরুষ চিতা বাঘটির নাম ‘ধ্রুব’ এবং মহিলা চিতাটির ‘কালি’। ধ্রুবর বয়স আনুমানিক ৯ থেকে ১১। অন্যদিকে কালীর বয়স ১৭।

বনাধিকারিক জানিয়েছেন, দীর্ঘ কয়েকবছর পর আবার রমনা বাগান অভয়ারণ্যে দু দুটি বাঘ আসায় এই জু এর আকর্ষণ বহুগুণ বেড়ে গেলো। তিনি জানান, খুব শীঘ্রই আরো কিছু আকর্ষণীয় পশু আসতে চলেছে এখানে। ভল্লুক,ঘড়িয়াল,বার্কিং ডিয়ার প্রভৃতি পশুগুলি চলে এলে দর্শক আগমন আগের তুলনায় অনেকটাই বেড়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দেবাশীষ বাবু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here