মতুয়া সভায় ঐক্যের ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী

0
124

মতুয়া সভায় ঐক্যের ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী
‘বিভেদ নয়। ঐক্যই মতুয়া সঙ্ঘের শক্তি’ । বৃহস্পতিবার দুপুরে ঠাকুরনগরে বড়মা বীণাপাণি দেবীর শততম জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে ফের একবার বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি এনআরসি নিয়ে মতুয়াদের আন্দোলনের ভূয়সী প্রশংসা করেন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এনআরসি-র নামে অসমে বাঙালি খেদাও চলছে৷ মমতাবালা ঠাকুররা ওখানে গিয়েছিলেন৷ ওঁদের ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়’।

আসামের বাঙালি এবং আসামবাসীর পাশে এ রাজ্যের মানুষ যে সবসময় আছেন, সেই বার্তাও দেন মমতা।
মতুয়া মহাসঙ্ঘের প্রধান উপদেষ্টা বীণাপানিদেবীর জন্মশতবর্ষ উদযাপিত হচ্ছে আজ। বড়মার জন্মজয়ন্তীতে সেজে উঠেছে ঠাকুরনগর। এই অনুষ্ঠানেই উপস্থিত হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, অন্ধ্রপ্রদেশ থেকেও মতুয়া সম্প্রদায়ের বহু মানুষ যোগ দিয়েছেন এই অনুষ্ঠানে।

এসেছেন বাংলাদেশের অনেক ভক্তও। এনআরসি-র বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই মতুয়ারা বিক্ষোভ দেখিয়েছে৷ বিরোধিতা চলছে বিভিন্ন মহলে৷ সেই প্রসঙ্গ তুলে মমতা বলেন, ‘মতুয়াদের আন্দোলনকে সমর্থন করি৷ মতুয়া সংঘ বরাবর উদ্বাস্তুদের পক্ষে৷ আমিও মতুয়া সংঘের সদস্য৷’

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘মতুয়া সঙ্ঘ বিকাশ পরিষদ তৈরি হয়েছে। মতুয়াদের ধর্মগুরু হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ ঠাকুরের নামে বিশ্ববিদ্যালয় হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য চাঁদপাড়ায় জমি নির্দিষ্ট করা হয়েছে। ৮.৮ একর জমির উপর বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হবে। এদিনের অনুষ্ঠান থেকেই মুখ্যমন্ত্রী জানান, তাঁর সরকারে আমলে ১০ লাখ ৫৭ হাজার জাতি শংসাপত্র দেওয়া হয়েছে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here