নিজস্ব প্রতিনিধি:  শনিবার রাতে অবস্থায় রক্তাক্ত অবস্থায় এক যুবতীর মৃতদেহ উদ্ধার করল পুলিশ।মৃতার নাম প্রিয়াংকা লামা (২৪)। বাড়ি নাগরাকাটা ব্লকের সুলকাপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের চাদরলাইনে।

পরিবারের অভিযোগ তাকে খুন করা হয়েছে। পরিবার সুত্রেই জানা গিয়েছে, গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রিয়াংকা কার সাথে ফোনে কথা বলতে  বলতেই বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায়। রাত আটটা নাগাদ বাড়ির পাশেই তার গোংরানির শব্দ পেয়ে এক প্রতিবেশী ছুটে আসেন।

তিনি দেখেন তার নাক মুখ দিয়ে রক্ত বেড়চ্ছে। সেই রক্ত চারিদিকে ছিটিয়ে যাচ্ছে। তিনিই তাঁর পরিবারকে খবর দেন। পরিবারের সদস্যরা তাকে সাথে সাথেই সুলকাপাড়া হাসপাতালের উদ্দেশ্যে নিয়ে যায়। পথেই তার মৃত্যু হয়।

পরিবার জানিয়েছে তার মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরিবারের দাবি কেউ বা কারা তাকে ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করে মেরে ফেলেছে। তাঁক খুন করা হয়েছে। সকলেরই দাবি যেই এই কাজ করুক না কেন তাকে খুঁজে বের করে শাস্তির ব্যাবস্থা করুক পুলিশ।

যদিও পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এদিকে বাড়ির একমাত্র মেয়ের এভাবে মৃত্যু হওয়াতে ঘন ঘন মুর্ছা  যাচ্ছেন তাঁর মা অরুনা আলে।  গত দু’মাস হল প্রিয়াংকা কার্শিয়াং এর একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকরি  পান।

প্রিয়াংকা লামার খুনিদের শাস্তির দাবিতে রবিবার দুপুরে মিছিল করে থানা ঘেরাও করেন  প্রতিবেশীরা।  যদিও নাগরকাটা থানার অসি অসিম মজুমদার পুরো বিষয়টা ক্ষতিয়ে দেখে ব্যাবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে ঘেরাও ও বিক্ষোভ উঠে যায়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here