বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ত্রিপুরা  ::অবশেষে গতকাল রাতে বিলোনিয়া থানাধীন বরজ কলোনি এলাকার সবিতা দেবনাথ অপহরণ এবং হত্যাকাণ্ডে একই এলাকার শ্রীকৃষ্ণ দেবনাথ (৪০)এবং চম্পা দেবনাথ (২৯)এই দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলো বিলোনিয়া মহিলা থানার পুলিশ।

 

 

 

 

 

 

 

গত ১৯ তারিখ সবিতা দেবনাথ নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা থানায় জানানোর পর পুলিশ প্রথম থেকেই সবিতা দেবনাথকে উদ্ধার করার জন্য তৎপরতা শুরু করে। অবশেষে ছয় দিন পর অর্থাৎ গত ২৪ তারিখ নিজ বাড়ির কাছেই সবিতা দেবনাথের পচা গলা মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এলাকাবাসী গরু চরাতে গিয়ে গন্ধ লাগায় মৃতদেহের সন্ধান পায়। খবর দেওয়া হয় পুলিশের কাছে। তারপর মৃতদেহের সনাক্তকরণ শেষে ময়নাতদন্ত করে দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেয়। এরপর বিলোনিয়া মহিলা থানা ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় আবার মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করে। যার কেস নাম্বার হল 19/2022। তদন্তি নেমে পুলিশ গত রাতে নিজ বাড়ি থেকে শ্রীকৃষ্ণ দেবনাথ (৪০) এবং চম্পা দেবনাথ (২৯)কে গ্রেপ্তার করে আজ পাঁচ দিনের পুলিশ রিমান্ড চেয়ে বিলোনিয়া আদালতে প্রেরণ করে। এই ব্যাপারে মহকুমা পুলিশ আধিকারিক অভিজিৎ দাস জানান খুন কান্ডে এই দুইজন জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে চম্পা দেবনাথ এর সাথে সবিতা দেবনাথ এর দুঃসম্পর্কিত আত্মীয়তা রয়েছে বলে জানান মহকুমা পুলিশ অধিকার। তবে এর সাথে আরো কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা তা নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তদের পুলিশ রিমান্ডে তা প্রকাশ্যে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। তবে এই ঘটনায় পুলিশ দ্রুততার সাথে ঘটনার কিনারা করতে পারলেও শহরের গিরিধারী আশ্রমপাড়া এলাকা থেকে মমতা মজুমদার নিখোঁজ হওয়ার ঘটনাটির এখনো কোন কুল কিনারা করতে পারেনি পুলিশ। তবে প্রতিটি ক্ষেত্রে পুলিশের তৎপরতা রয়েছে এটা বলা চলে। পুলিশ দ্রুততার সাথে সবিতা দেবনাথ হত্যাকান্ডে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে পারায় বিলোনিয়া জুড়ে স্বস্তি ফিরেছে জনমনে। এখন দেখার বিষয় এ ঘটনায় আরো নতুন কিছু উঠে আসে কিনা। তবে এলাকাবাসী এ ঘটনায় যারা যুক্ত রয়েছে তাদের কঠোর থেকে কঠোরতম শাস্তি অর্থাৎ ফাঁসির দাবি জানাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here