বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ::ভয়ঙ্কর কাণ্ড ঘটেছে ইউপ্রোতে একসঙ্গে ৩০০ কর্মীকে ছাঁটাই করেছে দেশের এই প্রথম সারির আইটি সংস্থা।

 

 

 

 

তার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন সংস্থার প্রধান রশিদ প্রেমজি। তিনি জানিয়েছেন এই কর্মীরা একই সময়ে বিরোধী সংস্থার হয়ে কাজ করছিলেন সেকারণে তাঁদের চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এক কথায় সংস্থার সঙ্গে এই ৩০০ কর্মী বিশ্বাসঘাতকতা করছিল। সেকারণে তাঁদের বরখাস্ত করা হয়েছে।

তিনি একটি ম্যানেজমেন্টের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি রীতিমত কর্মীদের সতর্ক করে বলেছেন, ৩০০ কর্মী সংস্থার সঙ্গে এক প্রকার বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন সেকারণে তাঁদের বরখাস্ত করা হয়েছে। আরও নজর রাখা হচ্ছে যাঁরা এই ধরনের কাজ আরও করে চলেছে তাঁদের চিহ্নিত করে পদক্ষেপ করা হবে। কারণ এই ধরনের কাজ যাঁরা করছেন তাঁরা সংস্থার গোপনীয়তা ভঙ্গ করছেন। সটা কোনও ভাবেই মেেন নেওয়া যায় না।

উইপ্রোর কর্নধার এক প্রকার কর্মীদের সতর্ক করে বলেছেন, কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না উইপ্রোর কোনও কর্মী গোপনে অন্য কর্মীর হয়ে কাজ করুক। যাঁরা মনে করছেন তাঁরা ধরা পড়বেন না। সেটা একেবারেই মিথ্যে বলে দাবি করেছেন তিনি। কারণ উইপ্রো নিজের সংস্থার গোপনীয়তার সঙ্গে কোনও ভাবেই আপোস করবে না। কাজেই সতর্ক থাকুন সকলে।

তিনি বলেছেন সম্প্রতি আইটি সংস্থায় মুন লাইটিং বলে একটি শব্দ শোনা যাচ্ছে। যার অর্থ হল এক সময়ে দুটি সংস্থার হয়ে কাজ করা। কিন্তু দেশের দ্বিতীয় বড় আইটি সংস্থা কোনওভাবেই এটা মেনে নেবে না। কোনও কর্মীকে এই ধরনের কাজ করতে দেখলে তাঁকে দ্বিতীয় কোনও সুযোগ দেওয়া হবে না। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হবে বলে বার্তা দিয়েছেন ইউপ্রোর কর্নধার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here