বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ঃ  সোমবার রাতে ১০০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ে বিপর্যস্ত নয়াদিল্লির একাধিক এলাকা। প্রায় একশো গাছ উপড়ে পড়েছে রাস্তায়। ভেঙে পড়েছে একাধিক বাড়ি। ঝড় প্রাণ কাড়ল দুই দিল্লিবাসীরও।

সোমবার সন্ধ্যার পর পর হঠাৎ ঘূর্ণি হাওয়া শুরু হয়। নয়াদিল্লি এবং মধ্য দিল্লিতে রাস্তায় আছড়ে পড়ে একের পর গাছ। গাছ চাপা পড়ে পার্কিং লটে থাকা গাড়িগুলি দুমড়ে মুচড়ে যায়। একাধিক বাড়ির টিনের ছাদ উড়ে গিয়েছে।প্রশাসন সূত্রে খবর, ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৮০টি বাড়িতে ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটেছে। জামা মসজিদের কাছে একটি বাড়ি ধসে মৃত্যু হয়েছে ৫০ বছর বয়সি কৈলাস নামে এক ব্যক্তির। দিল্লির অঙ্গুরি বাগে গাছ চাপা পড়ে মৃত্যু হয় বসির বাবা নামে আরও এক ব্যক্তির। দিল্লি প্রশাসন সূত্রে খবর, এই ঝড়ে মূল ক্ষতি হয়েছে নয়াদিল্লি এবং মধ্য দিল্লির। দু’ঘণ্টা ধরে তাণ্ডব চালায় ঝোড়ো হাওয়া। প্রায় ১৮০টি বড় বড় গাছ উপড়ে গিয়েছে। একাধিক বাড়ি আংশিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস আগেই ছিল। কিন্তু দু’ঘণ্টার মধ্যে মিনিট পনেরো যে তীব্র ঝড় হয়, তাতেই বিপর্যস্ত জনজীবন। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, দিল্লিতে প্রাক বর্ষায় এমন ঝড় তিন-চার বছর পর পর দেখা যায়।

মঙ্গলবারও দিল্লির আকাশ মেঘলা থাকবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। আগামী তিন দিন ১৮ থেকে ১৪ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া এবং হালকা বৃষ্টি হতে পারে বলে জানাচ্ছে মৌসম ভবন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here