সব কিছুই খোলা  বন্ধ স্কুল- কলেজ ফলে বাড়ছে ড্রপ আউটের সংখ্যা  এবার স্কুলে শুরু হোক পঠন-পাঠন চাইছেন অভিভাবকরা

0
14

অনিল পাল – কুমারগ্রাম – ২১ জানুয়ারি স্কুলে পঠন পাঠন নেই দীর্ঘ প্রায় ২ বছর হলো l এর ফলে ড্রপ আউটের সংখ্যা যেমন বাড়ছে পাশাপাশি অনেক ছাত্রই আজ কর্মের খোঁজে পাড়ি দিচ্ছে ভিন রাজ্যেও l

এমন চিত্র গ্রাম গঞ্জেই – চা বাগান এলাকা গুলোতে হামেশাই লক্ষ্য করছেন l বিশেষ করে গ্রাম গঞ্জে ড্রপ আউট এর সংখ্যাটাই বেশি l

আমরা এগিয়ে চলি ,সঙ্গে এগিয়ে চলে আমাদের পরিবার ,সমাজ ,ও সভ্যতা কিন্তু আজ বড় প্রশ্ন চিহ্নের মুখে আমাদের সভ্যতা ।

সত্যিই কী আমরা এগিয়ে চলেছি ? যেখানে সমগ্র ছাত্র – ছাত্রী স্কুল বাদ দিয়ে ঘরে বসে আছে ! তাদের ভবিষ্যৎ কী হবে ? আগামী দিনে আমাদের এই সভ্যতা কতটা এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম হবে আমাদের । তারা কোনো কর্ম সংস্থানে কত টা উপযোগী হবে ?
আজ দেখুন চারদিকে সব কিছু বিধি নিষেধ এর মাঝে খোলা আছে l বলুন তো আমরা কোথায় বসে আছি । মারণ ভাইরাস কোভিড-১৯ আসার পর সারা দেশ জুড়ে বেশ কিছু নির্বাচন ও হয়ে গেল

l চলছে মিটিং ও মিছিল l বিয়ে থেকে মেলা সব কিছু ঠিক ঠাক চলছে । দেশ জুড়ে বিশেষ ভাবে কোন কিছুই বন্ধ হয় নি ,বা বাতিল হয় নি । কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো ঠিক বন্ধ রাখা হয়েছে ।

সমাজ ও সভ্যতাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিধি নিষেধ মেনে খুব তাড়াতাড়ি সরকারি উদ্যোগে কিছু করা উচিত , মনে করছে অভিভাবক রাও । প্রয়োজনে বিধি নিষেধের মধ্যে সপ্তাহে ২ দিন ছোট ছোট গ্রূপ করে স্কুলে পঠন – পাঠন শুরু করা হোক l

বুদ্ধিজীবী দের এই ব্যাপারে আওয়াজ তোলা উচিত ! অবিলম্বে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খোলা উচিত । আর দেরী নয় ! সত্যি পিছিয়ে পড়ছি আমরা আর পিছিয়ে পড়ছে আমাদের আগামী কালের ভবিষ্যত ।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখায় তীব্র অসন্তোষ দানা বাঁধছে অভিভাবক মহলে l সোশ্যাল মিডিয়া ফেইসবুকে সরব অভিভাবক মহল l
অভিভাবক দের মধ্যে অনেকেই প্রতিক্রিয়ায় জানান, “যতদিন না গর্জে উঠবো, ততদিন সুরাহা হবেনা। অভিভাবক হিসেবে বলছি, এবার মনে হয় গর্জে ওঠা দরকার প্রত্যেক অভিভাবক দের। আমার সন্তানের ভবিষ্যত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, নষ্ট করে দিচ্ছে।

মা-বাবা হিসেবে সন্তানের এতো বড়ো ক্ষতিতেও যদি নীরব দর্শক হয়ে আওয়াজ না তুলি তাহলে তো মা-বাবা হওয়ার যোগ্য আমারা নই।
আমরাই দায়ী থাকবো আমাদের ছাত্র-ছাত্রী দের কাছে l

ভীষণ ভাবে দাবী জানাচ্ছি, অবিলম্বে ইউনিভার্সিটি- -কলেজ-স্কুল খোলা হোক !” অভিভাবক দের কথা , “করোনার গল্প অনেক হলো।

দয়া করে ছাত্র-ছাত্রী দের ভবিষ্যতের কথা ভেবে এবার স্টেজ থেকে নামুন, ভবিষ্যত নিয়ে আর খেলবেন না ! নিজেরা কিছুদিন পরেই ভার্স ত্যাগ করবেন, যারা থেকে যাবে, তাদের ভালো ভাবে থাকার রাস্তাটা বন্ধ করে দিয়ে যাবেন না।”
অভিভাবক দের থেকে আবেদন ,যদি একমত হন, তাহলে পোস্টটিকে শেয়ার করে এগিয়ে নিয়ে যান, ততক্ষন পর্যন্ত, যতক্ষণ না টনক নড়ে।”

” এ পৃথিবীকে এ শিশুর বাস যোগ্য করে যাবো আমি… নব জাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার ” ……. এই লক্ষ্যেই এগিয়ে আসুক সকলেই , এগিয়ে আসুক সরকার ও l

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here