ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ক্রিস . . .

0
16

 

নিজস্ব সংবাদদাতা : দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট দল এখন ব্য়স্ত ঘরের মাঠে ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ খেলতে। প্রথম ম্য়াচে হারের পর দ্বিতীয় ম্য়াচে জোহানেসবার্গে প্রোটিয়ারা কিন্তু জয় ছিনিয়ে নিয়েছে টিম ইন্ডিয়ার কাছ থেকে। তারই মাঝে মঙ্গলবার কেপটাউনে শুরু হল তৃতীয় টেস্ট।

 

 

ঠিক সেই সময়ই দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরে এসে পৌঁছল সেই দুঃসংবাদটা। খবরটা পেয়েই যেন কিছুটা হলেও বিস্মিত হয়ে পড়েন দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররা। কিন্তু কি এমন খবর, যা শুনে মুষড়ে পড়লেন প্রোটিয়ারা।

 

খবরটা আর কিছুই নয়, আচমকাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের কথা ঘোষণা করলেন দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার ক্রিস মরিস। মরিসের এই সিদ্ধান্তে ক্রিকেটাররাই শুধু হতবাক হননি, অবাক হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারাও।

 

বয়স এমন কিছুই হয়নি। আরও বেশ কয়েক বছর দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সি গায়ে চুটিয়ে খেলতে পারতেন মরিস। কিন্তু তিনি তা করলেন না। মাত্র ৩৪ বছর বয়সেই তাঁর প্রিয় ব্যাট, বল, গ্লাভস আর প্যাডকে চিরতরে তুলে রাখলেন এই ওপেনার। ক্রিকেটকে বিদায় জানাবার খবর, মরিস পোস্ট করেছেন ইনস্টাগ্রামেও।

 

এই সম্বন্ধে ইনস্টাগ্রামে এই অলরাউন্ডার লেখেন, আজ আমি সবধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানাবার সিদ্ধান্ত নিলাম। যে সমস্ত সমর্থকরা আমার খেলোয়াড় জীবনে সব সময় পাশে ছিলেন, তাঁদের সকলকে আমি ধন্য়বাদ জানাই। খেলোয়াড় জীবনে দীর্ঘ এই যাত্রাপথটা আমার কাছে খুবই আনন্দের ছিল। এই পথের নানা ঘটনাই আমার কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

 

তবে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেও ক্রিকেটের মাঠ থেকে কিন্তু একেবারে বিদায় নিচ্ছেন না মরিসক। কারণ, তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া দল টাইটানসের কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন। সেটাও সোশ্য়াল মিডিয়ায় জানিয়েছেন মরিস। সেই বিষয়ে তিনি লেখেন, ‘টাইটানস দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব নিতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। কোচ হিসেবে আমার নতুন জীবন এখন শুরু হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here