কাটোয়ার জগদানন্দপুর গ্রামে নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করল প্রশাসন

0
36

গৌরনাথ চক্রবর্ত্তী,কাটোয়াঃ কাটোয়া ২নং ব্লকের জগদানন্দপুর গ্রামের এক নাবালিকার বিয়ে রুখল কাটোয়া প্রশাসনের তৎপরতায়।

আখড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী ওই নাবালিকার বিয়ের কথাবার্তা চলছিল জোরকদমে।প্রশাসন সূত্রে জানা যায়,নাবালিকা বাবা জীবিত নাই।মাসি ও ঠাকুমা বিয়ে ঠিক করছিল।কিন্তু মা ও মেয়ে এই বিয়েতে রাজি ছিল না ।বৃহস্পতিবার মা সোমা মাঝি আখড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষক বিভাবসু রায়চৌধুরীকে জানান মেয়ের বিয়ে এখন দেব না।কিন্তু মাসি ও ঠাকুমা বিয়ে দিতে চাই।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সঙ্গে সঙ্গে কাটোয়া ২নং ব্লকে জানান।খবর পাওয়া মাত্রসেখান থেকে কাটোয়া ২নং ব্লকের সমাজকল্যাণ দপ্তরের আধিকারিক সুদর্শন মজুমদার,,চাইল্ড লাইনের প্রতিনিধি সুজিত দাস,আখড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিভাবসু রায়চৌধুরী ও স্কুলের নোড়াল শিক্ষিকা নাবালিকার বাড়িতে হাজির হন।সেখানে গিয়ে নাবালিকার মাসি ও ঠাকুমাকে বিয়ে বন্ধ করতে নির্দেশ দেন এবং বোঝান।

মেয়ে সাবালিকা না হওয়া পর্যন্ত তার বিয়ে যাতে না দেওয়া হয় তা বোঝানো হয় ছাত্রীর পরিবারকে। এছাড়া কন্যাশ্রী ও রুপশ্রী সম্পর্কে তাদের সম্যক ধারণা দেওয়া হয়।নাবালিকার শেফালি মাঝি ও মা সোমা মাঝি মুচলেকা দিয়ে জানান মেয়ের বয়স ১৮বছর না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দেবেন না।মেয়ে যথারীতি স্কুলে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here