বাঁকুড়ায় একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রীর

0
35

তারাশঙ্কর গুপ্ত,বাঁকুড়া: বুধবার বাঁকুড়ার শালতোড়ার প্রশাসনিক জনসভা এবং পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে বাঁকুড়ার জন্য ১৮৩ টি প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার ছেলে মেয়েদের বেকারত্ব দূর করতে এই তিন জেলার মধ্যে ‘শিল্প সরণী’ করার কথা ঘোষণা করেন তিনি । এটি বর্ধমানের দুর্গাপুর, পানাগড়, বাঁকুড়া হয়ে পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর পৌঁছাবে। শিল্প সরনীর দুপাশে গড়ে উঠবে অসংখ্য শিল্প কেন্দ্র।

কর্মসংস্থান হবে লক্ষ লক্ষ মানুষের। কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরী হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন কেন্দ্র অনৈতিকভাবে বীরভূমে হতে চলা পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম কলিয়ারির প্রজেক্টের কাজ বন্ধ রেখেছে। এটি তৈরি হলে কয়েক লক্ষ বেকারের কর্মসংস্থান হবে বলে জানান তিনি।

কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ করে বলেন ‘দিল্লীর বড় বড় ভাষণ’ । ”বলছে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট করো, আধার কার্ড করো, ডিজিট্যাল কার্ড করো, ব্যাঙ্কই নেই” তবে এসব কি হবে বলেও তিনি প্রশ্ন তোলেন।

সভামঞ্চে থেকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন বাম-বিজেপি- কংগ্রেসকে। তিনি বলেন, এখানে তিনটি রাজনৈতিক দল আছে। নাম না করে সিপিএমের সমালোচনা করে বলেন, ”34 বছর যারা ক্ষমতায় ছিলেন, তারা ধার করে মাকে বিক্রি করে দিয়ে গেছেন, জঙ্গল মহলকে রক্তাক্ত করে দিয়ে গেছেন, বেকার সংখ্যা বাড়িয়ে দিয়ে গেছেন”। আর তারাই আজ ‘বিজেপির সঙ্গে ঘর করছে’ বলে মুখ্যমন্ত্রী দাবী করেন। এপ্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, এদের সাথে কোন সম্পর্ক রাখবেননা।

আত্মবিশ্বাসের সুরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপি ভারতবর্ষ থেকে বিজেপি বিদায় নেবে। বাংলা থেকে যেমন বামফ্রন্ট বিদায় নিয়েছে, দেশ থেকে এরাও বিদায় নেবে।

এদিনের সভায় মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রী ইন্দ্রণীল সেন, শ্যামল সাঁতরা,বাঁকুড়ার জেলাশাসক ডাঃ উমাশঙ্কর এস, জেলার তিন জন মহকুমাশাসক এবং শাসক দলের সকল বিধায়ক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here