১০৭ বছরে নিজের স্ত্রীকেই আবার বিয়ে করলেন বৈদ্যনাথ দেবশর্মা

0
44

১০৭ বছরে নিজের স্ত্রীকেই আবার বিয়ে করলেন বৈদ্যনাথ দেবশর্মা

বিশ্বরূপ দে : মানসিক ও শারীরিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ থেকে ১০০ বছর অতিক্রম করার পর ৯০ বছর আগে বৈবাহিক জীবনে আবদ্ধ হওয়া নিজের বিবাহিতা স্ত্রী পঞ্চবালা দেবশর্মাকে পুনরায় বিয়ে করে নজির সৃষ্টি করলেন দিনাজপুরের দক্ষিণ মেড়াগাঁওয়ের ১০৭ বছর বয়সী বৈদ্যনাথ দেবশর্মা ।

নিজের ইচ্ছাতেই একেবারে বিয়ের নিমন্ত্রণ পত্র ছাপিয়ে আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী সহ সহস্রাধিক মানুষকে বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রীতিভোজে যোগদান করার আমন্ত্রণ জানিয়ে, পুরোহিতের উপস্থিতিতে হিন্দু ধর্মের সনাতনী বেদমন্ত্র “যদিদং হৃদয়ং মম, তদিদং হৃদয়ং তব” উচ্চারণ করে নিজের বিবাহিত ৯৬ বছর বয়সী স্ত্রীকে নিয়ে সকলের সামনে সাতপাকে ঘুরে, মালাবদল ও সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে বিবাহ সম্পন্ন করে সকলকে তাক লাগিয়ে একেবারে এলাহি কাণ্ড করে বসলেন ১০৭ বছরের “তরুণ” বৈদ্যনাথ দেবশর্মা ।

রবিবার নবদম্পতির সাজে সজ্জিত শতাধিক বর্ষীয় বর ও শতবর্ষ ছুঁই ছুঁই কনে দেখতে দূর দুরান্ত থেকে বহু মানুষ এসে উপচে পরে দিনাজপুরের বিরল উপজেলার সীমান্ত গ্রাম দক্ষিণ মেড়াগাঁওয়ের বিয়েবাড়িতে ।

ভিড় সামলাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় বরের পাঁচ প্রজন্ম আগের বৃদ্ধ-বৃদ্ধা মেয়ে-জামাই, নাতি-নাতনি, তাদের নাতি-নাতনি ও বন্ধু-বান্ধব, প্রতিবেশি সকলকে ।

নাচ, গান, বাদ্য-বাজনা এবং শেষমেষ জমিয়ে পেটপুরে কচি পাঠার মাংস, গরম ভাত আর তৃপ্তি করে দই, রসগোল্লা খেয়ে রীতিমতো হৈ হুল্লোড় এবং ঘটা করে শুভ ও ব্যতিক্রমী “নব-বিবাহ” সম্পন্ন হয় বৈদ্যনাথ ও পঞ্চবালা দেবশর্মার ।

তাদের একমাত্র মেয়ে বৃদ্ধা ঝিনকোবালা দেবশর্মা জানিয়েছেন,  পরিবারের সকলের দীর্ঘায়ু ও মঙ্গল কামনায় বাবা-মা স্বেচ্ছায় নিজেদের এই দ্বিতীয়বার বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তাদের প্রজন্মরাও যাতে সুস্থ শরীরে দীর্ঘায়ু লাভ করে জীবনের আনন্দ উপভোগ করতে পারে সেই জন্য সকলের সৃষ্টিকর্তা ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করতেই মহা ধুমধাম করে অতিথি আপ্যায়নের মাধ্যমে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঝিনকোবালা ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here