২১ বছরের এক তরুণের মাসিক আয় ২৭ কোটি টাকা # সিদ্ধার্থ সিংহ

0
27

২১ বছরের এক তরুণের মাসিক আয় ২৭ কোটি টাকা

সিদ্ধার্থ সিংহ

বছরে নয়, প্রতি মাসে ২৭ কোটি টাকা আয় করেন ২১ বছরের রিতেশ আগরওয়াল।

তিন বছর আগে এক মধ্যরাতে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকতে না পেরে বাইরে রাত কাটাতে হয় তাঁকে।

ওই রাতে জোর করে এক হোটেলে ঢুকে তিনি অনেক অপ্রীতিকর অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হন। আর ওই অভিজ্ঞতাই বদলে দিয়েছে তাঁর পুরো জীবন।

তিনি বলেন, ‘হোটেলে ঢুকে দেখি রিসিপশনিস্ট ঘুমোচ্ছেন। রুমের সকেটগুলো কাজ করছে না। মেঝেয় পা রাখা যাচ্ছে না এত ধুলো। বালিশ তেলচিটে ময়লা। তোশক ছেঁড়া। বাথরুমের কল থেকে টপটপ করে জল পড়ছে। কিছুতেই বন্ধ করা যাচ্ছে না।

শেষে দেখলাম, তাঁরা ক্রেডিট কার্ডও নিচ্ছেন না। তখন আমি ভাবলাম, এগুলো যদি আমার সমস্যা হয়, তা হলে তো আমার মতো অন্যরাও একই সমস্যায় পড়ছেন।’

হোটেল ব্যবসায় এ রকম অব্যবস্থা দেখে তিন বছর পরে রিতেশ প্রতিষ্ঠা করেন সংশ্লিষ্ট কাজের একটি নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান— ‘অয়ো রুমস’।

যে প্রতিষ্ঠানের প্রধান কাজই হল, একজন ব্যক্তি যাতে বিনা ঝামেলায় এবং নির্ঝঞ্ঝাটে হোটেলে থাকতে পারেন, তার জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা করা।

ভারতের ৩৫টি শহরের এক হাজারেরও বেশি হোটেল এখন তাঁর নেটওয়ার্কের আওতায়। তাঁর অধীনে কাজ করছেন প্রায় এক হাজার দক্ষ কর্মী। আর সেই সাম্রাজ্যের তিনিই এখন সর্বময় কর্তা।

ছোটখাটো হোটেলের শুধুমাত্র সেবার মান উন্নত করাই এই প্রতিষ্ঠানের একমাত্র কাজ নয়, হোটেল কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া থেকে শুরু করে প্রযুক্তিগত সেবা দেওয়াটাও এই প্রতিষ্ঠানটি অন্যতম কাজ।

সম্প্রতি রিতেশ একটি অ্যাপ তৈরি করেছেন যার মাধ্যমে আগ্রহীরা হোটেলের কামরা বুক করতে পারবেন এবং যেখান থেকেই রওনা হোন না কেন, হোটেলে কী ভাবে যাবেন তার পথনির্দেশিকাও পাবেন।

হোটেলে পৌঁছে যাবতীয় সেবা তো বটেই, রুম সার্ভিসের মতো অত্যন্ত ন্যূনতম সেবাগুলোও এই অ্যাপের মাধ্যমে পাবেন।

এ সব কাজের জন্যই প্রতি মাসে রিতেশের গড়পড়তা আয় এখন প্রায় ২৭ কোটি ২২ লক্ষ টাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here