নিজস্ব প্রতিনিধি : পরীক্ষা হলে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর খাতা ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে এই নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন  অভিভাবকরা ।

বালুরঘাট খাদিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোমবার উত্তেজনা। ঘটনাস্থলে বালুরঘাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। তবে পরীক্ষার ছেঁড়া খাতাটি মেরামত করে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে দাবী প্রধান শিক্ষিকার।

জানা গেছে, বালুরঘাট গার্লস হাইস্কুলের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সুপ্রীতি সরকারের  পরীক্ষার সিট পড়েছে বালুরঘাট খাদিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে। এদিন অংক পরীক্ষা ছিল।

অভিযোগ, বেল পরার পর ডিউটিতে থাকা পরীক্ষক খাতা সংগ্রহ করতে শুরু করেন। তিনি পর পর খাতা না নিয়ে সুপ্রীতির খাতাটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। সেসময় ওই খাতাটি মাঝখান থেকে দুই ফালা হয়ে যায়।

আংশিক জোড়া লেগে থাকা খাতাটি নিয়ে চলে যান অভিযুক্ত পরীক্ষক প্রমীলা সরকার। ঘটনায় ছাত্রীটির পাশে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করে অনান্য ছাত্রীরা। বিষয়টি জানানো হয় অবিভাবকদের।

এরপরেই স্কুলের বাইরে ও ভেতরে ঢুকে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে সমস্ত অবিভাবকরা। ঘটনাস্থলে আসে ডিএসপি সহ বালুরঘাট থানার পুলিশ। ছুটে যান বালুরঘাটের প্রধান কেন্দ্রের ইনচার্জ নারায়ন কুন্ডু। তিনি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ও ছাত্রীটির পরিবারের সাথে কথা বলেন। খাতাটি যাতে মূল্যায়ন করা হয়, তার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট বিভাগে কথা বলবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here