অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার মৃতদেহ মীনাক্ষী বিশ্বাস নামে এক ব্যাংক ম্যানেজারের বলে শনাক্ত করলেন তার পরিবার।

0
39

গত 13ই নভেম্বর সন্ধ্যায় নদিয়ার নাকাশিপাড়া থানার ঝাউতলা এলাকায় ভাগীরথীর জল থেকে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত পরিচয় মহিলার মৃতদেহ মীনাক্ষী বিশ্বাস নামে এক ব্যাংক ম্যানেজারের বলে শনাক্ত করলেন তার পরিবার।

মীনাক্ষী বিশ্বাস (31)নামের ওই মহিলা মুর্শিদাবাদ জেলার লালগোলায় একটি রাষ্ট্রায়ত্ত (সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া) ব্যাংকের ম্যানেজার ছিলেন।

অভিযোগ,গত 12 ই নভেম্বর অফিসে যাওয়ার জন্য বেড়িয়ে নিখোঁজ হয়ে যান মীনাক্ষী দেবী।এর পর 13 তারিখ নাকাশিপাড়া থানার পুলিশ গঙ্গার ধার থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে।তার পর থেকে প্রায় দীর্ঘ 12 দিন পর্যন্ত তার কোনো পরিচয় জানতে পারেনি পুলিশ।

শনিবার মীনাক্ষী দেবীর বাবা ও দাদা মৃতদেহ দেতাকে শনাক্ত করেন।মৃতার পরিবার সূত্রে খবর,নদিয়ার করিমপুরের বাসিন্দা বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর এগ্রিকালচার এর ছাত্রী মীনাক্ষী দেবী 2013 সালের 15 ই মার্চ বাড়ির অমতে মুর্শিদাবাদ জেলার রঘুনাথ গঞ্জের বাহাদী নগরের বাসিন্দা রাজু সরকার নামে এক ব্যক্তিকে বিয়ে করে।

অভিযোগ,বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই মীনাক্ষী দেবীর সাথে অশান্তি শুরু হয় স্বামী রাজু সরকারের।অভিযোগ, ব্যবসা করবে বলে মীনাক্ষী কাছ থেকে প্রচুর টাকা নেয় রাজু।অভিযোগ,সম্প্রতি সেই টাকা দেওয়া বন্ধ করে দেওয়ায় চলত শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চালাতো রাজু ও তার পরিবার।অভিযোগ,গত 12 ই নভেম্বর থেকে মীনাক্ষী নিখোঁজ হয়ে গেলেও তার বাপের বাড়ির কাউকে কিছু জানায়নি রাজু।

মীনাক্ষীর বাপের বাড়ীর অভিযোগ,তাকে খুন করে ভাগীরথীর জলে ভাসিয়ে দিয়েছিল স্বামী রাজু সরকার।রবিবার মীনাক্ষীর পরিবারের হাতে দেহ তুলে দেবে নাকাশিপাড়া থানার পুলিশ।অন্যদিকে ইতিমধ্যেই মীনাক্ষী বিশ্বাসের স্বামী রতন সরকার কে গ্রেফতার করেছে রঘুনাথ গঞ্জ থানার পুলিশ।গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here