রোজগারের তাগিদে মহিলারা আজ পেট্রোল পাম্প কর্মী

0
66

 

অতনু গোস্বামী, নদীয়া:- :  পেট্রোল পাম্প কর্মী হিসাবে পুরুষদেরই বোঝায়। কিন্তু পেট্রোলপাম্পে পুরুষ কর্মীর বদলে মহিলা কর্মী এখনো গ্রামবাংলায় অনেকটাই বেমানান। যদিও বর্তমান সমাজে রোজগারের তাগিদে কর্মজীবনে পুরুষদের থেকে কোন অংশে পিছিয়ে নেই দেশের মহিলাও। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্র আছে যেখানে আজও মহিলা কর্মী দেখতে পাওয়া যায় না বললেই চলে।

সেই রকম একটি কর্মক্ষেত্র গ্রাম বাংলার পেট্রোল পাম্প। আজ সেইখানেও একজন পুরুষ কর্মীর সাথে সমতালে দায়িত্বের ও নিপুনতার সাথে কাজ করতে দেখা গেলো মহিলাদেরও।

নদীয়ার কৃষ্ণগঞ্জ থানার অন্তর্গত একটি গ্রাম্য এলাকার পেট্রোল পাম্পে পুরুষদের পাশাপাশি সমানভাবে মহিলারাও কাজ করেন পেট্রলপাম্প কর্মী হিসাবে।

রোজগারের তাগিদে সংসারের হাল ধরতে আজ পুরুষদির চাইতে মেয়েরাও যে কোন অংশে পিছিয়ে নেই তারই প্রমাণ মেলে এই পেট্রোল পাম্পে গেলে।

সংসারে আর্থিক অভাব ও সামাজিক জীবনে একটু ভাল থাকার তাগিদে আজ মহিলারাও পেট্রোল পাম্পকে বেছে নিয়েছেন কর্মজীবন হিসেবে।
মহিলা পেট্রলপাম্প কর্মী অপর্ণা বিশ্বাস জানালেন, অর্থ উপার্জনের বিষয়ের পাশাপাশি শহরতলীর মহিলাদের থেকে কর্মজীবনের নিরিখে গ্রাম্য এলাকার মহিলারা ও যে আজ পিছিয়ে নেই তারই প্রমাণ স্বরূপ তাদের কর্মজীবন হিসেবে পেট্রলপাম কে বেছে নেওয়া। তিনি আরো বলেন যে, পুরুষকেন্দ্রিক সমাজে সংসারের হাল ধরতে একজন পুরুষের পাশাপাশি একজন রোজগেরে মহিলা ও যে সম পারদর্শী হতে পারে তাই তার প্রমাণ করে দিতে চান তাদের কর্মজীবনের মাধ্যমে।
একজন পেট্রলপাম্প কর্মী হিসাবে তিনি তার কর্মজীবনকে বেছে নিয়ে আনন্দিত বলেও জানিয়েছেন অপর্ণা দেবী।
তিনি বলেন, এই কাজে তাদের সম্পূর্ণ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন পেট্রোল পাম্পের মালিক শিবপ্রসাদ কুন্ডু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here