দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বালুরঘাটে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ারক্র্যাফট দীপক এইচ পি টি-৩২।

0
41

দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বালুরঘাটে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ারক্র্যাফট দীপক এইচ পি টি-৩২। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জেলা সৈনিক বোর্ডের উদ্যোগে বালুরঘাট শহরের সত্যজিৎ মঞ্চ সংলগ্ন এলাকার সৈনিক ভবন চত্বরে।

এতদিন বালুরঘাট শহরের রঘুনাথপুর এলাকায় ট্যাংকটি শুধু ছিল সীমান্তবর্তী দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সদর শহর বালুরঘাটের অন্যতম পরিচিতি বাহক। এবার সেই পরিচিতির বাহকের নবতম সংযোজন হতে চলেছে ভারতীয় বায়ুসেনার দীপক এয়ারক্র্যাফট এইচ পি টি -৩২।

সেই উদ্দেশ্যে সুদূর হায়দ্রাবাদ থেকে বালুরঘাটের সৈনিক ভবনে ইতিমধ্যেই এসে পৌছে গিয়েছে দীপক এইচ পি টি-৩২ এয়ারক্র্যাফট। ঘন্টায় ৩৫০-৪০০ কিলোমিটার আকাশপথ পাড়ি দিতে সক্ষম জেট প্রপেলার এই দীপক এইচ পি টি-৩২ ভারতীয় বায়ুসেনায় অন্তর্ভুক্ত হয় ১৯৮৩ সালে এবং বায়ুসেনা থেকে প্রত্যাখিত হয় ২০০৯ সালে। জানা গেছে বেশ কিছুদিন ধরে বালুরঘাটে জেলা সৈনিক বোর্ড একটি এয়ারক্র্যাফট চেয়ে শিলং-এ অবস্থিত ভারতীয় বায়ুসেনার ইস্টার্ন এয়ার হেড কম্যান্ডের কাছে আবেদন করেছিল।

সেই আবেদনের ভিত্তিতে ভারতীয় বায়ুসেনার ইস্টার্ন এয়ার হেড কম্যান্ড তিরুপতি, পুনা সহ বালুরঘাট শহরের জন্য একটি করে বায়ুসেনার এয়ারক্র্যাফট বরাদ্দ করে। দীপক এইচ পি টি এয়ারক্র‍্যাফট বালুরঘাটে জেলা সৈনিক ভবন চত্বরে প্রবেশ করতেই জেলা সৈনিক ভবনে শুরু হয়েছে দীপককে জনসমক্ষে প্রদর্শিত করার তৎপরতা। কংক্রিটের পিলার নির্মাণকাজ চলছে জোড় কদমে। সেই সঙ্গে বায়ুসেনার এই দীপক এয়ারক্র্যাফটকে চাক্ষুষ দেখতে ভীড় জমাতে শুরু করেছে বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা।

শুধু চাক্ষুষ দেখাই না দেশের ভবিষ্যত এই ছাত্র ছাত্রীদের অন্তরে ইতিমধ্যেই বোপন হতে শুরু করে দিয়েছে বায়ুসেনায় যোগদান হওয়ার মধ্য দিয়ে দেশসেবায় ব্রতী হওয়ার স্বপ্ন। ছাত্র ছাত্রীদের কৌতুহলী জিঘাংসা মেটাতে এবং ভারতীয় বায়ুসেনায় তাদের যোগদানের স্বপ্নের বাস্তব পথ নির্দেশ করতে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে জেলা সৈনিক বোর্ডের আধিকারিকরাও।

সেই কারনে ইতিমধ্যেই তারা বালুরঘাটে জেলা সৈনিক বোর্ডের সৈনিক ভবন চত্বরে সৌন্দর্জ্যায়নে উদ্যোগী হয়েছে তৎসহ ছাত্র ছাত্রীদের এয়ারক্র্যাফট সমন্ধে আগ্রহী করতে বিভিন্ন শিক্ষামূলক তথ্য জানাতে উদ্যোগী হয়েছে। জেলা সৈনিক বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক তথা ভারতীয় বায়ুসেনার প্রাক্তন স্কোয়ার্ড্রন লিডার সত্যব্রত চক্রবর্তী বলেন ১৯৭১ সালে ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধ জয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার একটা বিশেষ অবদান ছিল। সেই কারনে আমরা ভেবেছিলাম একটা এয়ারক্র্যাফট যদি এখানে নিয়ে আসতে পারি তাহলে ভারতীয় বায়ুসেনার প্রতি ছাত্র ছাত্রীদের আগ্রহ বৃদ্ধি হবে। এর পাশাপাশি তিনি এও জানান গৌহাটি থেকে বিশেষ দল সঠিক সময়ে বালুরঘাটে আসলে আগামী ২০-২৫ দিনের মধ্যে দীপক এইচ পি টি এয়ারক্র্যাফটটিকে প্রতিস্থাপন করা সম্ভব হবে তবে প্রতিস্থাপিত স্থান সংলগ্ন এলাকার সৌন্দর্জ্যায়নের জন্য আরও কিছু সময় লাগবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here