নদীয়ার শান্তিপুরে একই পরিবারের ৩ জন ষাটোর্ধ অনাহারে মৃতপ্রায়, দর্শক নেতা থেকে প্রশাসন

0
25161

সূর্য চট্টোপাধ্যায়, নদীয়া:- সারা বাংলা তথা বিশ্বজুড়ে নদীয়ার শান্তিপুর যেখানে কৃষ্টি, সংস্কৃতি, শিল্প এবং ভাষার জন্য সুপরিচিত সেখানে আজ একবিংশ শতাব্দীতেও শান্তিপুরেরই একই পরিবারের ৩ জন ষাটোর্ধ মানুষ আজ প্রায় ৩-৪ দিন ধরে না খেয়ে অনাহারে মৃতপ্রায়।

৺ পরমানন্দ মুখার্জী ছিলেন শান্তিপুর কলেজের নামকরা প্রফেসর। ১৯/৩, ডাবরে পাড়া লেন, হাবলাপুকুরের সন্নিকটে তাঁদের বসত ভিটে। বর্তমানে তাঁর দুই অবিবাহিত পুত্র দেবাশীষ মুখার্জী ও বিশ্বজিৎ মুখার্জীএবং এক অবিবাহিত কন্যা নমিতা মুখার্জী সকলেই ষাটোর্ধ এবং শিক্ষিত।

কিন্তু বয়সের ভারে কোনো কাজকর্ম করতে পারেন না। পরিস্থিতি তাঁদেরকে আজ অথর্ব করে দিয়েছে। তাঁদের পৈতৃক ভিটেতেই তাঁরা তিন ভাইবোন একসাথেই থাকেন। জ্বরাজীর্ণ পৈতৃক ভিটেই এখন তাঁদের মাথা গোঁজার একমাত্র সম্বল।

সূত্রের খবর, তাঁদের ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজ অবধি ওই পরিবারটির কোনো খোঁজখবর নেন নি। তাঁদের নিজস্ব জায়গা আছে কিন্তু তাঁদের কপালে জোটে নি সরকারী ঘর। এই অবস্থায় শান্তিপুরের কিছু সমাজকর্মী তাঁদেরকে দেখাশোনা করছে, খাওয়ার দিচ্ছে, কিন্তু এটা কতদিন সম্ভব? তায় আমাদের এই সংবাদ পড়ে যদি কোনো সহৃদয় ব্যাক্তি অথবা প্রতিষ্ঠান তাঁদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় তাহলে আমাদের এই সংবাদ করার স্বার্থকতা থাকবে।

আমরাও তাঁদের পাশে থাকলাম। ৯৪৭৫১৬৫১৭৭ এই নম্বরে সরাসরি মুখার্জী পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here