গাজা পাচারের স্বর্গভূমি কালনা কাটোয়া মহকুমা

0
18

নিজস্ব সংবাদদাতা : গাজা পাচারের স্বর্গভূমি কালনা কাটোয়া মহকুমা। দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ ছিল যে কালনা মহকুমা জুড়ে প্রচুর গাঁজা পাচার হয় এবং পাচারকারীদের দৌরাত্ম্য এসমস্ত অঞ্চলে বিদ্যমান। বেআইনি মাদক পাচার রুখতে ফের বড়সড় সাফল্য পেল কালনা থানার পুলিশ।বুধবার রাতে এসটিকেকে রোডের উপর থেকে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ৪ কুইনটাল গাঁজা উদ্ধার করল কালনা থানার পুলিশ। একটি গাড়িতে করে মাদক পাচারের অভিযোগে ওই গাঁজা সহ দুজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বুধবার গভীর রাতে এসটিকেকে রোডের উপর অভিযান চালায়।

নাদনঘাট থেকে কালনাগামী সন্দেহ জনক একটি স্করপিয় গাড়ি দেখতে পায় পুলিশ। তারপর সেই গাড়িটি দাঁড় করিয়ে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। সঙ্গে সঙ্গে কয়েকটি বড় প্যাকেট পুলিশের নজরে আসে। তারপরেই তা খতিয়ে দেখে ৪ কুইন্টাল গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ। সেই সময় গাড়িতে দুই পাচারকারীকে হাতেনাতে ধরে ফেলে পুলিশ। পূর্ব বর্ধমান জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈকত ঘোষ বলেন,” ওই দুই ব্যক্তিকে আমরা গ্রেফতার করেছি। তবে সেই ব্যক্তিদের নাম পরিচয় আমরা এখনই প্রকাশ করছি না। আমরা জানতে পেরেছি এই দুজনের সঙ্গে আরও পাচারকারী রয়েছে। আমরা তাঁদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। পুলিশ সূত্রে জানাগিয়েছে, ধৃতরা একজন অসমের বাসিন্দা অন্যজন ব্যান্ডেলের বাসিন্দা। সেই সঙ্গে ওই গাড়িটির কাগজপত্রও দেখে মালিকের খোঁজ চালানো হচ্ছে। পুলিশের অনুমান, এদের সাথে আরও অনেক বেআইনি মাদক কারবারিরা জরিত রয়েছে। সম্ভবত এদের কাছ থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে মাদক পাচার করা হয়ে থাকে। এর আগেও এসটিকেকে রোডে কালনা ও পূর্বস্থলীর কাছাকাছি এলাকা থেকে একাধিক বার কয়েক কোটি টাকার গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রায় এক বছর আগেই পূর্বস্থলীর ধারা পাড়া থেকে ৩০০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছিল পুলিশ। সেই ঘটনাতে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। আবার তাঁর কয়েক দিন পরেই পূর্বস্থলীর বেলের হল্ট স্টেশন থেকে পঁচিশ কেজি গাঁজা সহ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। তারও প্রায় কয়েক বছর আগে পূর্বস্থলী থেকে এক দল গাঁজা পাচারচক্রের হসিদ পায় পূর্বস্থলী থানার পুলিশ। সেই চক্রের বিরুদ্ধে বারবার অভিযান চালিয়ে গাঁজা পাচার প্রায় বন্ধ করেছিল পুলিশ। কিন্ত এদিন ফের গাঁজা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এত বিশাল পরিমাণ গাঁজা কোথায় যাচ্ছিল তা খুঁজে বের করার জন্য তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here